দেশে দুঃশাসন -রাজ চলছে। দুঃশাসন তৈরিক সবথেক বড় কারখানা হল বিজেপি। ঝাড়গ্রামের জনসভা থেকে এভাবেই প্রতিপক্ষ পদ্মশিবিরকে নিশানা করলেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপিকে মহাভারতের খল-চরিত্র দুর্যধনের ছোট ভাই দুঃশাসনের সঙ্গে তুলানা করে বলেন, তারা দেশটিকে ধ্বংস করে দিতে চাইছে। 

বুধবার ঝাড়গ্রামের গোপিবল্লভপুরের জনসভা থেকে মমতা বলেন বাংলায় বিজেপি পরাজিত হবে। আর সেই কারণেই গোটা দেশ বর্তমানে বাংলার দিকে তাকিয়ে রয়েছে। এদিনও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেন। সেই বৈঠকের প্রসঙ্গ তুলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, সাধারণ মানুষকে কোভিড-এর টিকা দেওয়ার প্রস্তাব তিনি দিয়েছিলেন।  তিনি বলেন এই ক্ষমকা রাজ্যের হাতে নেই। এটিতে কেন্দ্রের অনুমোদন প্রয়োজন।  জনসভাতে তিনি জানিয়েছেন তিনি রাজ্যের প্রত্যেক নাগরিককে বিনামূল্য করোনা টিকা দেওয়ার প্রস্তাবও দিয়েছেন। তার বিনিময় অর্থ প্রদানেও তিনি প্রস্তুত রয়েছেন বলেও জানিয়েছেন। তবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তা দিচ্ছেন না বলেও অভিযোগ করেন মমতা। তিনি বলেন সেই কারণেই বর্তমানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। 

এদিন সভামঞ্চে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জয় শ্রীরাম প্রসঙ্গ উত্থাপন করেন। মমতা বলেন, বিজেপির জমানায় নিজের ধর্ম অনুসরণ করা যাবে না। বিজেপি সকলকে জয় শ্রীরাম বলতে বাধ্য করবে। কোনও মানুষ যদি চায় তাহলেও সে জয় সিয়া রাম বলতে পারবে না, তিনি আরও বলেন ভগবান শ্রী রাম দেবী দুর্গার আরাধনা করতেন। কারণ তিনি জানতের দেবীর ব্যাপ্তি সম্পর্কে। এদিন তিনি প্রত্যেক নাগরিকের কাছে নিজের ভোট নিজে দেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন। তিনি বলেন রাগিং যাতে না হয় তারজন্য জঙ্গলমহলের মা বোনেদের সজাগ থাকতে হবে। 

নতুন করে কি সমস্যায় পড়তে পারেন তৃণমূল নেত্রী, 'বাড়ি বাড়ি রেশন' প্রতিশ্রুতি নিয়ে রিপোর্ট তলব কমিশন..

লালমাটির ঝাড়গ্রামে ত্রিমুখী লড়াই, কার হাতে থাকবে 'জঙ্গলমহল'র দায়িত্বভার ...

এদিন আবারও পায়ে চোটের প্রসঙ্গ তুলে বিজেপিকে নিশানা করেন মমতা। তিনি বলেন সারা জীবন ধরেই তাঁর ওপর অত্যাচার করা হয়েছে। একটা সময় সিপিএম তাঁর ওপর অত্যাচার চালিয়েছিল। তাঁর মাথা ভেঙে দিয়েছিল। দেহের একাধিক জায়গায় আঘাত করা হয়েছিল। আর বিজেপি তাঁকে আক্রমণ করছে। এতদিন কেবল তাঁর পাদুটি নিরাপদ ছিল। কিন্তু এখন তাঁর পায়ে আঘাত করা হয়েছে যাতে তিনি দাঁড়াতে না পারেন তারজন্য। এমনই অভিযোগ করে মমতা বলেন তিনি বাংলার মা ও মেয়েদের পায়ের ওপর ভর করেই আগামী দিনে লড়াই চালিয়ে যাবেন।