রাজ্য জুড়ে চলছে তৃতীয় দফার নির্বাচন। তিন জেলার ৩১টি আসনে চলছে নির্বাচন প্রক্রিয়া। হাওড়া জেলার ৭টি আসন, হুগলি জেলার ৮টি আসন ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার ১৬টি আসনে চলছে ভোটগ্রহণ। কিন্তু প্রথম ও দ্বিতীয় দফাকেও হার মানাল সকাল থেকে দিকে দিকে যেভাবে হিংসার খবর উঠে আসছে। একাধিক জায়গায় শাসক ও বিরোধী দলের প্রার্থীরা আক্রান্ত হওয়ার পাশাপাশি ভোটারদের ভোটদানে বাধা, সন্ত্রাস, বোমাবাজির অভিযোগ উঠছে একাধিক জায়গায়।

অভিযোগ থেকে বাদ গেল না হাওড়ার শ্যামপুর বিধানসভা কেন্দ্রও। এই কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী টলিউডের তারকা প্রার্থী তনুশ্রী চক্রবর্তী। অভিযোগ শ্যামপুরে শাশুড়ির হয়ে ভোট দিয়ে দিয়েছে বৌমা। এই ঘটনা জানার পরই ওই বুথে যান বিজেপি প্রার্থী তনুশ্রী। গিয়ে প্রিসাংডিং অফিসারের সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন তিনি। কীভাবে একজনের ভোট অপর জন দিল তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন বিজেপি প্রার্থী। শুধু প্রিসাংডিং অফিসার নয়, এই ঘটনার প্রতিবাদে বুথের এজেন্টদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় তনুশ্রী চক্রবর্তীর।

যদিও প্রিসাইডিং অফিসার দাবি করেন,‘শাশুড়ি চোখে দেখতে পান না বলে বৌমাকে ভোটের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।' কিন্তু নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী কেউ অপারক হলে , তার জায়গায় যদি অন্য কেউ ভোট দেন, তাহলে প্রিসাইডিং অফিসারের কাছ থেকে লিখিত অনুমতি নিতে হবে। কিন্তু এই ক্ষেত্রে তা করা হয়নি। বিষয়টি নির্বাচন কমিশনকে জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তনুশ্রী চক্রবর্তী। ঘটনায় সাময়িকভাবে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।