আশিস মণ্ডল,বীরভূম- বীরভূমে প্রশাসনিক বৈঠকে কর্মসংস্থানের বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। দেউচা পাচামি কয়লা উত্তোলন প্রকল্পে লক্ষাধিক কর্মসংস্থান হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। পূর্ব নির্ধারিত সময়সূচি অনুযায়ী বেলা দেড়টা নাগাদ বোলপুরে প্রশাসনিক বৈঠক শুরু করেন মুখ্যমন্ত্রী। সরকারের একাধিক বিষয়ে আলোচনার মধ্যেও দেউচা পাচামির কথাও তুলে ধরেন মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন-'দুয়ারে সরকার' কর্মসূচির সাফল্য, এবার 'পাড়ায় পাড়ায় সমাধান' আনছে সরকার

প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ''দেউচা পাচামি কয়লা উত্তোলন প্রকল্পের চালু হলে এক লক্ষ কর্মসংস্থান হবে। বেকারত্ব সমস্যা মিটবে। এই প্রকল্প চালু হলে একশো বছর বিদ্যুতের কোনও সমস্যা হবে না। এখনও পর্যন্ত যতটা এলাকা দেখা হয়েছে। ততটা জনবসতি নেই। কারও জমিও নেই। তাই আপাতত কোনও সমস্যা নেই। যদি ভবিষ্যতে সেরকম পরিস্থিতি তৈরি হয়। তাহলে চাকরি ও আর্থিক সাহায্যের বিষয়টা দেখা হবে''।

আরও পড়ুন-ভোটের আগে ঘাসফুলে করোনার হামলা, আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রামনগরের বিধায়ক

এদিন বিশ্বভারতীকে দেওয়া পূর্ত দফতরের রাস্তা ফেরত নেওয়া হয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রশাসনিক বৈঠকে আশ্রমিকদের দেওয়া একটি চিঠি পড়ে শোনান তিনি। চিঠিতে আশ্রমিকরা লিখিছেন, ''শিক্ষাভবন থেকে শান্তিনিকেতন -শ্রীনিকেতন সংযোগকারী রাস্তা কার্যত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আগে সকাল ৬ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত ভারি গাড়ি নিষিদ্ধ ছিল। এখন সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে''। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ''বিশ্বভারতীর অনুরোধে আমরা রাস্তা তাদের দিয়েছিলাম। কিন্তু বোলপুরে আসার আগে আমরা ওই রাস্তা ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য বিশ্বভারতীকে চিঠি করেছি”। একইসঙ্গে এদিন বোলপুরে নবনির্মিত বিশ্ববাংলা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বপন দত্ত’র নাম উপাচার্য হিসাবে ঘোষণা করেন।