Asianet News Bangla

'রাজ্যপাল ফোবিয়া শুরু হয়েছে তৃণমূলের', ভোট পরবর্তী হিংসা ইস্যুতে বিস্ফোরক দিলীপ

  •  'তৃণমূলের মধ্যে রাজ্যপাল ফোবিয়া শুরু হয়েছে 
  • ' রাজ্যপালকে নিয়ে ভূত দেখছেন  নেতা নেত্রীরা'
  • 'তৃণমূলের হিংসার ঘটনা তুলে ধরছেন রাজ্যপাল'
  • ' যা সহ্য করতে পারছে না তৃণমূল', বার্তা দিলীপের 
Dilip Ghosh attacks to CM Mamata Banerjee on post poll violence RTB
Author
Kolkata, First Published Jun 20, 2021, 2:33 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

 'তৃণমূলের মধ্যে রাজ্যপাল ফোবিয়া শুরু হয়েছে। রাজ্যপালকে নিয়ে ভূত দেখছেন তৃনমূল কংগ্রেসের নেতা নেত্রীরা',উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ শহরে এক দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে এসে এমনই প্রতিক্রিয়া দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

আরও পড়ুন, ভবানীপুরে কী কারণে প্রার্থী দিতে চান না অধীর, কি বলছে CPM  

রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, 'তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে রাজ্যপাল মেনিয়া, রাজ্যপাল ফোবিয়া শুরু হয়েছে। রাজ্যপালকে নিয়ে ভূত দেখছেন তৃনমূল কংগ্রেসের নেতা নেত্রীরা। কারন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় তৃনমূলের হিংসা আর সন্ত্রাসের সত্য ঘটনা তুলে ধরছে যা সহ্য করতে পারছে না তৃণমূল কংগ্রেস ।'  উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ শহরে এক দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে এসে এমন মন্তব্য করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দিলীপ ঘোষের অভিযোগ, রাজ্যজুড়ে তৃণমূল কংগ্রেস হিংসা আর সন্ত্রাস চালাচ্ছে। বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা চালাচ্ছে। এটা কেউ তুলে ধরছে না। আমরা রাজ্যপালের কাছে রাজ্যের এই হিংসার ঘটনা তুলে ধরার জন্য আবেদন করেছিলাম। রাজ্যপাল বাইরে বেড়িয়ে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে সত্য ঘটনা তুলে ধরেছেন। আর তাতেই রাজ্যপাল ফোবিয়া হয়ে গিয়েছে তৃনমুল কংগ্রেস নেতা প্রার্থীদের। রাজ্যে একটা স্বৈরাচারী শাসন চলছে', বলে অভিযোগ করেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। 

আরও পড়ুন, ঘাটালের রাস্তায় নামল নৌকা, বেহালার বেহাল দশায় 'আগেও ক্ষমা চেয়েছিলাম', সাফাই ফিরহাদের  


অপরদিকে, ভোট পরবর্তী হিংসার ইস্যুতে এবার কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হল রাজ্য় সরকার। উল্লেখ্য,গত সোমবারেই বিজেপির বিধায়ক দলের সঙ্গে রাজ্য়পাল তাঁর বাসভবনে দেখা করেন। সেখানে বাংলার ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়েও অভিযোগ করেন শুভেন্দু অধিকারী সহ বিধায়করা। তারপরেই আচমকা রাজ্যপালের দিল্লি সফর ঘিরে ইতিমধ্যেই সরগরম পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতি। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যের অবস্থা দেখে রিপোর্ট দিতে মানবাধিকার কমিশনকে নির্দেশে দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্টের ৫ সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চ। এবার সেই রায়ের স্থগিতাদেশ চেয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে রাজ্য সরকার।  

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios