২৮ মার্চ ব্রিগেডে দারুণ সফল সভা করেছে বাম-নেতৃত্বাধীন সংযুক্ত মোর্চা। এবার সামনে বিজেপির ব্রিগেড সভা। আর সেখানকার মূল চুম্বক অবশ্যই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তবে সেইসঙ্গে সভায় উপস্থিত থাকবেন বাংলার তিন জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব - সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, মিঠুন চক্রবর্তী এবং প্রসেঞ্জিৎ চট্টোপাধ্যায়। মঙ্গলবারই একটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত এই খবর নিয়ে সরগরম বাংলার রাজনীতি। বুধবার, রাজ্য বিজেপির কোর কমিটির বৈঠকের পর, এই বিষয়ে সব জল্পনার অবসান ঘটালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

মঙ্গলবার, রটে গিয়েছিল প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেট অধিনায়ক তথা বর্তমান বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট এবং বাংলা চলচ্চিত্র জগতের দুই তারকা শুধু বিজেপির ব্রিগেড জনসভায় উপস্থিত থাকবেন তাই নয়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হাত থেকে পদ্ম শিবিরের পতাকাও গ্রহণ করবেন তাঁরা। যেভাবে বর্তমানে খেলোয়াড়, চলচ্চিত্র তারকা - সব স্তরের সেলিব্রিটিদের হয় বিজেপি, নয়তো তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার ঘটা পড়েছে, তাতে এই জল্পনা ছড়িয়ে পড়তে বেশি সময় লাগেনি। বিশেষ করে অমিত শাহ-র পুত্র জয় শাহ-র সঙ্গে সৌরভের ঘনিষ্ঠতা এবং সদ্য মিঠুনের বাড়িতে আরএসএস এবং প্রসেঞ্জিতের বাড়িতে বিজেপির আগমন সেই সম্ভাবনা আরও জোরালো বলেই মনে করা হচ্ছিল।

জয় শাহ-র সঙ্গে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

এদিন, অবশ্য কোর কমিটির বৈঠকের পর পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি প্রধান তথা মেদিনীপুরের লোকসভার সাংসদ দিলীপ ঘোষ স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, তিন তারকার যোগ দেওয়ার বিষয়ে তাঁর কাছে কোনও খবর নেই। তিনি জানান, 'এই বিষয়ে আমার কোনও ধারণা নেই, বা বৈঠকেও কোনও আলোচনা হয়নি।
'
তাহলে কোর কমিটির বৈঠকে কী নিয়ে আলোচনা হল? দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, এদিন প্রথম দুই দফার বিজেপির প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। শীঘ্রই কোর কমিটির পক্ষ থেকে পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচনের এই দুই দফার প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করা হবে। সেইসঙ্গে, বিজেপি শীর্ষ নেতারা এদিন রাজ্যে জেপি নাড্ডা, অমিত শাহ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আসন্ন সমাবেশগুলিও পর্যালোচনা করেছেন।  প্রসঙ্গত, রাজ্যে নরেন্দ্র মোদী একাই প্রায় ২০টি সভা করবেন বলে খবর। এছাড়া জেপি নাড্ডা এবং অমিত শাহ-রা অন্তত ৫০টি করে সভা করবেন বলে বিজেপি সূত্রে খবর।