'আমি একটা বড় গাধা, বারবার ঠকে যাই, বুঝতেই পারি না', পূর্ব মেদিনীপুরে রবিবার সভা করতে গিয়ে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন তৃণমূল সুপ্রিমো। কিন্তু কী কারণে এমনটা বললেন এমনটা বললেন, তা খোলসা করলেন পরে নিজেই মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন, ' ধুয়ে-মুছে সাফ হয়ে যাবে তৃণমূল', BJPতে যোগ দিয়েই বললেন শিশির অধিকারী 

 

 

এদিন দক্ষিণ কাঁথির পর উত্তর কাঁথিতে সভা করতে এসে মমতা বললেন, 'আমি একটা বড় গাধা, বারবার ঠকে যাই। অনেক সম্মন করতাম, ভালোবাসতাম। বিশ্বাসও ছিল। যদিও আমি সবাইকে গাধার মতোই বিশ্বাস করি। আর সেই গদ্দাররা দলে থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা করেছে , আমি বুঝতেই পারিনি। বারবার সব মানুষকে বিশ্বাস করে ঠকে যাই। মমতা এদিন নাম না করেই আরও বলেন ২০১৪ থেকে বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছে। মেদিনীপুরের মানুষের সঙ্গে গদ্দারি করেছে। ঘরে সিঁধ কেটে বিজেপিকে রাজ্যে এনেছে।'

 

আরও পড়ুন, 'ভাইপোকে মুখ্যমন্ত্রী বানাতে চায় মমতা', এগরায় নিশানা অমিত শাহের 

 

 


প্রসঙ্গত, কাঁথিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উপস্থিতি বিজেপিতে যোগ দিয়েই শুভেন্দু অধিকারী বলেছিলেন,অমিত শাহের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। ২০১৪ থেকে অমিত শাহ-র যোগাযোগ রয়েছে। সেসময় অমিত শাহ বিজেপির সর্ব ভারতীয় সভাপতি। ২০১৪তেই দিল্লির অশোকা লেনে বিজেপির পুরোনো দফতরের একটি ঘরে শাহের সঙ্গে তাঁর অনেক কিছুই আলোচনাও হয়েছিল  বলে দাবি করেছিলেন শুভেন্দু। এদিন মমতা ফের বলেন, 'গদ্দাররা গিয়েছে, ভালই হয়েছে। না হলে আমিই বের করে দিতাম।'আর রবিবার মমতার কথায় তাই 'আঙুর ফল টক'-র মতোই ফের উসকে গেল রাজ্য-রাজনীতি।