দেশ জুড়ে বাড়ছে কৃষি আন্দোলনের উত্তাপ। দিনে দিনে তীব্র আকার ধারন করছে কৃষি আইনের বিরোধিতায় কৃষকদের এই আন্দোলন। এই অবস্থায় কৃষকদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই বৈঠক থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষিনীতির পক্ষে জোরালো সওয়াল করলেন। পাশাপাশি, বিজেপি সরকার কৃষিক্ষেত্রে উন্নয়নে কী কী পদক্ষেপ করেছে তাও তুলে ধরলেন। 

বড়দিনে কৃষকদের সঙ্গে সরাসরি ভার্চুয়াল বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী। সেখান থেকে তিনি বলেন, ''২০১৪ সাল থেকে আমরা নতুন রণকৌশল নিয়ে কাজ করছি। সামান্য কিছু টাকার প্রিমিয়ামে প্রধানমন্ত্রী ফসল বিমার সুযোগ ও সুফল পাচ্ছেন কৃষকরা। ইতিমধ্যেই ওই বিমার থেকে ৮৭ হাজার কোটি টাকা পেয়েছেন কৃষকরা''। তিনি আরও বলেন,''নূন্যতম সহায়ক মূল্য যোগ করার কথা আগেই বলা হয়েছিল। ফসল বিক্রি করতে আজ কৃষকরা আলাদা বাজার পাচ্ছেন এবং অনলাইনেও কৃষিজাত পণ্য বিক্রি করছেন কৃষকরা''।

বিরোধীদের নিশানা করে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ''কৃষকদের ভুল কিছু বোঝাবেন না। সমস্যা থাকলে সরকারের সঙ্গে আলোচনা করুন। এই সব দল ও আগের সরকারের জন্য কৃষিতে উন্নয়ন হয়নি। আগের সরকারের কারনেই গরিবরা আরও গরিব হয়েছেন''। মন্তব্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। তিনি আরও বলেন, ''কৃষকরা এতকিছু সুবিধা পাচ্ছেন। এতে অন্যায়ের কি আছে। কেউ বলছেন এমএসপি থাকবে না। নতুন আইনে কোনও জরিমানা দিতে হবে না। চুক্তি অনুযায়ী কৃষকদের টাকা দিতে বাধ্য থাকবেন চুক্তিকারীরা''। মন্তব্য প্রধানমন্ত্রীর।