প্রত্যাশা মতোই মুর্শিবাদ-এ এবার প্রার্থী পদ দেওয়া থেকে সরে দাঁড়াল সমাজবাদী পার্টি। মাস খানেক আগেই লখনউয়ে দলের অন্যতম শীর্ষনেতা অখিলেশ যাদব ঘোষণা করে দিয়েছিলেন যে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন ২০২১-এ এবার সপা মমতার পাশেই থাকবে। এমনকী, সমস্ত বিজেপি বিরোধী দলকেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে থাকার আহ্বান জানিয়েছিলেন সমাজবাদী পার্টির যুবরাজ তথা উত্তর প্রদেশের সবচেয়ে অল্পবয়সে মুখ্যমন্ত্রী হওয়া অখিলেশ। ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে মুর্শিদাবাদ জেলায় সপা ২২টি কেন্দ্রের মধ্যে ৮টি আসনে প্রার্থী দিয়েছিল। 

আরও পড়ুন, 'BJP বলে বিকাশ হবে', পুরুলিয়ায় 'খেলা হবে'-র পাল্টা পানীয় জলের ইস্যুতে মমতাকে নিশানা মোদীর 

বৃহস্পতিবার  সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুর্শিদাবাদ জেলা সমাজবাদী পার্টির সভাপতি তুষার কান্তি চট্টোপাধ্যায় জানান, মুর্শিদাবাদে এবার আর কোনও প্রার্থী দিচ্ছে না সপা। তিনি আরও বলেন যে, 'আমরা বিজেপিকে প্রতিহত করতে তৃণমূল কংগ্রেসকে সমর্থন করার এই গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। সেইমতো আমাদের এই ভাবনা তৃণমূল সুপ্রিমো এবং মুর্শিদাবাদ জেলার তৃণমূল নেতৃত্বকেও জানিয়ে দিয়েছি। মুর্শিদাবাদে সবকটি আসনেই আমরা তৃণমূলকে সমর্থন করব'।

"

আরও পড়ুন, 'ঘরের দুয়ারের সাপটাকে আটকাতে হবে'- গোয়ালতোড়ে BJPকে নিশানা মমতার  

 প্রসঙ্গত, গত ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে সমাজবাদী পার্টি তৃণমূলের বিপক্ষে মুর্শিদাবাদ জেলার ২২ টি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে ৮ টি কেন্দ্রে তাদের প্রার্থী দাঁড় করিয়েছিলো। ভোট প্রাপ্তির নিরিখে ৬-৭ শতাংশ ভোট পেয়েছিল সমাজবাদী পার্টি। এইবার তৃণমূলকে তারা সমর্থন করায় স্বাভাবিকভাবেই ওই ভোটের শতাংশ তৃণমূলের ভোটবাক্সে  জমা হবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা সাংসদ আবু তাহের খান বলেন,'বিজেপিকে রুখতে আমাদেরকে যারা নিঃস্বার্থভাবে সহযোগিতা করতে চাইছে তাদেরকে আমরা ওয়েলকাম জানাচ্ছি। বাকিটা রাজ্য নেতৃত্ব দেখবে।'