কেন্দ্রীয় সরকারি পদে শুভেন্দুর ইস্তফা ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে। ২ মাসও পার হতে না হতেই কেন্দ্রীয় সরকারের জুট কর্পোরেশনের অস্থায়ী পদ থেকে ইস্তফা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী।  এদিকে এনিয়ে জল্পনার জল উসকে সরগরম রাজ্য রাজনীতি।

আরও পড়ুন, মহা শিবরাত্রিতে নন্দীগ্রাম থেকে মনোনয়ন পেশ মমতার, তবে ভবানীপুরে কে 

 

 

কী  দাবি করেন শুভেন্দু

 বিজেপিতে যোগ দিতেই কাঁথির সভা থেকে নন্দীগ্রামের প্রাক্তন বিধায়ক বলেছিলেন, কোনও পদের লোভে তিনি বিজেপিতে আসেননি। উল্লেখ্য, একাধিক দফতরের মন্ত্রীত্ব-বোর্ডের চেয়ারম্য়ান সহ বিধায়ক পদে ইস্তফা দিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন এটাই প্রমাণ দাবি করেন শুভেন্দু অধিকারী। আর  বিজেপিতে যোগ দিতেই ক্যাবিনেট মন্ত্রীর সমতুল্যপদে বসানো হয়েছিল নন্দীগ্রামের প্রাক্তন বিধায়ককে। কিন্তু এবার এই পদেও বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর ইস্তফা প্রকাশ্যে আসতেই  জল্পনা তুঙ্গে।  

আরও পড়ুন, Election Live Update- শিবরাত্রিতে নন্দীগ্রাম থেকে মনোনয়ন পেশ মমতার, ওদিকে BJP যোগের জল্পনায় জল ঢাললে 

 

 

 ইস্তফাপত্রে কী লিখেছেন শুভেন্দু অধিকারী 


অপরদিকে ইস্তফাপত্রে শুভেন্দু লিখেছেন, 'এই মুহূর্ত থেকে কেন্দ্রীয় বস্ত্র মন্ত্রকের জুট কর্পোরেশনের অস্থায়ী চেয়ারম্য়ানের পদ থেকে পদত্যাগ করছি। দয়া করে আমার ইস্তফাপত্র গ্রহণ করুন।' তবে শুভেন্দুর এই সিদ্ধান্ত ঘিরে রাজনৈতিক মহলের দাবি, ভোটে দাঁড়াতে গেলে কোনও সরকারি পদে থাকা যায় না। তবে  কি প্রার্থী তালিকা ঘোষণার আগের মুহূর্তে সেই কারণেই ইস্তফা, গুঞ্জন রাজ্য-রাজনীতিতে।