একুশের নির্বাচন এখনও কয়েকমাস বাকি। তার আগে থেকেই জেলায় জেলায় রাজনৈতিক হিংসা অব্যাহত। রবিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনায় বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। বিজেপির উপর হামলার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ঘটনার জেরে তীব্র উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বিষ্ণুপুর থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন-নন্দীগ্রামের পর শুভেন্দুর সভা ঘিরে ফের বিশৃঙ্খলা, পুরুলিয়ায় পতাকা লাগানো গাড়ি ঘিরে উত্তেজনা

জানাগেছে, রবিবার সকালে বিষ্ণুপুরের আশুতিতলা এলাকায় বিজেপির চায়ে পে চর্চা কর্মসূচি ছিল। অটোস্ট্য়ান্ড চত্বরে এই কর্মসূচির সময় তৃণমূলের সঙ্গে বচসা শুরু হয় বলে অভিযোগ। দুই পক্ষের বচসার জেরে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। ঘটনার জেরে গুরুতর জখম হন এক বিজেপি কর্মী। ঘটনার তীব্র নিন্দা করে তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুলেছে তাঁরা। ঘটনার জেরে এলাকায় উত্তপ্ত পরিস্থিতি তৈরি হয়।

আরও পড়ুন-বর্ধমানে বিজেপির পাল্টা রোড শোয়ে শক্তি প্রদর্শনে মরিয়া তৃণমূল, পুরুলিয়ায় মহামিছিলে শুভেন্দু

আশুতি এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূলের উপপ্রধান পার্থ কয়েল বলেন, বিজেপির অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। আমাদের ঘোষিত কর্মসূচি চলছিল পাড়ায় পাড়ায় সমাধান। এই অনুষ্ঠান চলাকালীন বিজেপির দুষ্কৃতীরা এসে তৃণমূলের পতাকা ছিঁড়ে বিজেপির পতাকা লাগায় সেই নিয়ে বচসা হয়। পুলিশ এসে দুই পক্ষকে সরিয়ে দেয়। অন্যদিকে, বিজেপি কর্মীর উপর হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।