তনুজ জৈনঃ 'আমি জলঢোঁড়াও নয় বেলেবোড়া নয়- জাত গোখরো,এক ছোবলেই ছবি'। বিজেপিতে যোগ দিয়েই নিজের ছবির ডায়লগ দিয়ে ব্রিগেড কাঁপিয়েছেন মিঠুন চক্রবর্তী। বড়পর্দার 'এমএলএ ফাটাকেষ্ট'-র নির্বাচনের আগে বিজেপিতে যোগদান বিজেপির মাস্টারস্ট্রোক হিসেবেই দেখছে রাজনৈতিক মহল। যদিও একদা তাদের প্রাক্তন রাজ্যসবার সাংসদকে পাল্টা দিতে দেরি করেনি তৃণমূল কমগ্রেস শিবির। ফিল্মি ডায়লগকে ফিল্মি কায়দায় মোকাবিলা করেছেন তৃণমূল নেতা ও কামাহাটির প্রার্থী মদন মিত্র।

রবিবার মালদা জেলার গাজোল বিধানসভায় আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে ঝাড়খন্ড দিসম পার্টি ও আদিবাসী সিঙ্গেল অভিযান এর পক্ষ থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনে একটি বিশাল সভার আয়োজন করা হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, তৃণমূল নেতা তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্র। সেই সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মদন মিত্র বলেন,'উনি যদি মিঠুন চক্রবর্তী হন তাহলে আমিও মদন মিত্র। আমিও খবর পড়ি না, খবর দেখি না। খবর তৈরি করি।' এছাড়াও মিঠুনের বিখ্যাত ' মারবো এখানে, লাশ পড়বে শ্মসানে' ডায়লগকে কটাক্ষ করে মদন মিত্র বলেন,মিঠুন চক্রবর্তীর মত একজন অভিনেতার এই ধরনের মন্তব্য ককরা ঠিক হয়নি।

"

এখানেই শেষ নয়, সভায় বক্তব্য রাখার সময় বিরোধীদের আক্রমণ করতে গিয়ে মিঠুনের ডায়লগকে ধার করেন মদন মিত্র। তিনি বলেন, মালদা জেলায় ভোটের সময় ভিন রাজ্য থেকে লোক ঢোকাতে চেষ্টা করবে বিজেপি। তাদের রুখতে মদন মিত্র বলেন,'যারা দাদাগিরি করতে আসবে তাদের মারবো এখানে আর লাশ পড়বে ভিন রাজ্যে।' ফলে ভোটের আগে মিঠুন চক্রবর্তীর বিজেপিতে যোগ দান, তাকে পাল্টা তোপ মদন মিত্রের। রবিবাসরীয় ব্রিগেড ভোটের তাপমাত্রা বাড়িয়ে দিল আরও কয়েক গুন।