পঞ্চমদফার ভোটের আগের সোমবার ময়দানে মোদী-শাহ-র মুখোমুখি মমতা। যদিও  সোমবার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারাসাত স্টেডিয়ামে কর্মীসভা করতে আসার কথা ছিল। কিন্তু  বারাসাতে বাতিল হল মুখ্যমন্ত্রীর জেদের সভা।
 

আরও পড়ুন, ' ওরা গুলি স্প্রে করেছে', শীতলকুচি কাণ্ডের প্রতিবাদে উত্তরবঙ্গে কালো পোশাকে মমতা 

 

 

 কারণ একইদিনে মোদীও আসছেন বারাসাতে। তাঁকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস বারাসাত স্টেডিয়ামে সভার আয়োজন করে। এবং কর্মীদের আনাগোনা এই গণ্ডগোলের সম্ভাবনা আছে।  মুখ্যমন্ত্রীর জনসভা করায় অনুমোদন দিল না রাজ্য নির্বাচন কমিশন ও জেলা প্রশাসন।পরিবর্তে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভা হবে আগামী মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল সকাল ১১ টায় বারাসাত স্টেডিয়ামে। উল্লেখ্য, আগামী ১৭ এপ্রিল বারাসাত বিধানসভা কেন্দ্রে নির্বাচন। লোকসভা ভোটে বারাসাত পৌরসভার ৩৫ টি ওয়ার্ডের মধ্যে ২৮ টি ওয়ার্ডে পিছিয়ে ছিল তৃণমূল। বারাসাত শহর তৃণমূল সূত্রের খবর, মুখ্যমন্ত্রীর সভাকে কেন্দ্র করে জোরদার প্রচার কর্মসূচী পালন করেছে তৃণমূল নেতাকর্মীরা। বারাসাত বিধানসভা কেন্দ্রের এবারের তৃণমূল প্রার্থী গতবারের বিধায়ক চিরঞ্জিত চক্রবর্তী। তৃতীয়বারের জন্য তাকে আবারও বিধায়ক পদে দেখতে মরিয়া বারাসাত তৃণমূল কংগ্রেস।  প্রার্থীর সমর্থনেই বারাসাতে জনসভায় আসবেন মুখ্যমন্ত্রী। 
 

আরও পড়ুন, 'মোদী কোড অব কনডাক্ট নাম রাখা উচিত', কমিশনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে শীতলকুচি যাওয়ার বার্তা মমতার 

 

 

অপরদিকে, সোমবার রাজ্য সফরে এসে ৩ টি জনসভা করবেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। প্রথমে পশ্চিম বর্ধমানের তালিতে, এরপর ২ জনসভা উত্তর ২৪ পরগণার কল্যাণী এবং বারাসাতে। এবং আগামী শনিবার রাজ্যে পঞ্চম দফার ভোটের দিনও ফের প্রচারে আসবেন মোদী। পাশাপাশি এদিন  জোড়া রোড শো এবং জোড়া জনসভায় উত্তরবঙ্গে আসবেন অমিত শাহ। প্রসঙ্গত, রাজ্যে চতুর্থ দফার ভোটের দিনে শীতলকুচি কাণ্ডের পর অনেকদূর জল গড়িয়েছে। কমিশন-কেন্দ্রীয়বাহিনী-মোদী-শাহ কাউকেই নিশানা করতে ছাড়েননি মমতা। রবিবার মমতা টুইটে তোপ দেগে বলেছেন, 'মডেল অব কনডাক্ট-এর বদলে মোদী অব কনডাক্ট করুক কমিশন'। এদিকে সোমবার শীতলকুচি কাণ্ডের পর রাজ্য়ে প্রচারে সভায় ময়দানে শাহ-মোদী। যদিও আগেরদিন রবিবার শাহ রোড শো-সাংবাদিক সম্মলনে মমতাকে যা উত্তর দেবার দিয়েই দিয়েছেন। তবুও এদিন মোদী কী বার্তা দেন, তার অপেক্ষায় রাজ্যবাসী।