রবিবাসরীয় সন্ধ্যায় মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় ৪ জনের প্রাণ গেল ইটাহার থানার বেকিডাঙ্গা এলাকায়। জানা গিয়েছে এদিন সন্ধ্যা ৭ টা নাগাদ প্রচন্ড গতিতে ছুটে আসা একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা চারজনকে মুহূর্তের মধ্যে পিষে দেয়। এই ঘটনা-কে কেন্দ্র করে স্বাভাবিকভাবেই ওই এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে পুলিশ। তারা ঘাতক ট্রাকটিকে আটক করলেও অভিযুক্ত চালক পালিয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের উপড়ে। পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদের নাম গোরাচাঁদ বর্মন (২৮), নটু বর্মন ( ৪৮), লক্ষী বর্মন (৩৪) ও পটল বর্মন (২৭)। তারা প্রত্যেকেই পাহারাজপুরের ভবানীতলা এলাকার বাসিন্দা। জায়গাটি দুর্ঘটনাস্থল থেকে সামান্য দুরেই। তপন দাস নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, ওই এলাকায় জাতীয় সড়কে চারটি লেন রয়েছে, অর্থাৎ পাশাপাশি চারটি গাড়ি যেতে পারে। ঘাতক ট্রাকটি আসছিল রায়গঞ্জ শহরের দিক থেকে। নিহত চার ব্যক্তি রাস্তার ডিভাইডারে উল্টোদিকে মুখ করে দাড়িয়ে ছিল। ট্রাকটি প্রচন্ড গতিতে এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রথমে ডিভাইডারে ধাক্কা মারে, তারপর ওই চারজন কিছু বুঝে ওঠার আগেই তাদের পিষে দেয়।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদেহগুলিকে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এদিকে ঘটনার পরই ওই এলাকা ছেড়ে চম্পট দেয় ট্রাকের চালক। তার সন্ধান চালানো হচ্ছে। ঘাতক ট্রাকটিকে আটক করেছে পুলিশ।

লকডাউনের কড়াকড়ি থাকায় মাঝের দুইমাস পথ দুর্ঘটনার পরিমাণ অনেকটাই কমেছিল। কিন্তু, এখন লকডাউনের চতুর্থ দফায় বিধি নিষেধ খানিক শিথিল করতেই ফের বেড়ে চলেছে দুর্ঘটনার সংখ্যা। যেন শুধু ভাইরাস নয়, মানুষের হাত থেকেও বাঁচতে মানুষকে ঘরেই থাকতে হবে।