সীমান্তে অপরাধীকে ছিনিয়ে নিতে পুলিশের উপর হামলা। এযেন অবিকল হিন্দি ছবির শুটিং স্পট।  পুলিশ ভ্যান থেকে অপরাধীকে ছিনিয়ে নিতে ভারত বাংলা সীমান্তে পুলিশ আধিকারিকের উপর হামলা চালাল দুষ্কৃতিরা। তবে ৫ জন গুরুতর জখম হতেই, ভোটের আগে বেরিয়ে পড়ল রাজ্যের নিরাপত্তার করুণ অবস্থা।
 

আরও পড়ুন, কয়লাকাণ্ডে কলকাতার ৮ ব্যবসায়ীর বাড়িতে ED-র হানা, ওদিকে সুপ্রিম কোর্টে লালার শুনানিও আজই 

 


  
পুলিশ ভ্যান থেকে অপরাধীকে ছিনিয়ে নিতে গিয়ে ইন্দো-বাংলা সীমান্তের মুর্শিদাবাদে। একদল উন্মত্ত বাইক আরোহী ও তাদের সাগরেদর সঙ্গে সংঘর্ষে  আক্রান্ত হল কর্তব্যরত  সাব-ইন্সপেক্টর সহ এক এক করে থানার ৫ জন পুলিশকর্মী । রবিবার এই ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়াল হরিহরপাড়া এলাকায়। পরবর্তীতে বিশাল পুলিশবাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে হাজির হয়। রাত্তিরের শেষ পাওয়া খবরে জানা যায় পুলিশের ওপর ধারাবাহিক আক্রমণের ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে।   তল্লাশি অভিযান চালিয়ে সোমবার মূল অভিযুক্ত রাজ্জাক মণ্ডলসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হল। ধৃত দুষ্কৃতীদের সকলকে মঙ্গলবার বহরমপুর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে তোলা হবে।

আরও পড়ুন, ফের লাফিয়ে বাড়ল গ্যাসের দাম, চারদিনের মাথায় মূল্যবৃদ্ধিতে ঘুম উড়ল শহরবাসীর  


ইতিমধ্য়েই আক্রান্ত পুলিশ কর্মীদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে হাসপাতালে।স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,এদিন একটি ব্রীজের উপর যানজট কে কেন্দ্র করে ঘটনার প্রথম সূত্রপাত। তারপরে একদল উন্মত্ত যুবকের সঙ্গে প্রথমে দুইজন  পুলিশ কর্মীর তর্কাতর্কি থেকে হাতাহাতি সংঘর্ষ হয়।পরবর্তীতে থানা থেকে বিশাল পুলিশবাহিনী ছুটে এলে অভিযুক্ত  মধ্যে থেকে একজনকে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়ার সময়  পুলিশ ভ্যান থেকে অভিযুক্ত যুবকের ছিনিয়ে নিয়ে চলে যাই উন্মুক্ত যুবকদের দল। 

আরও দেখুন, Election Live Update- শাহের বঙ্গসফর অনিশ্চিত, ওদিকে আব্বাসের আসন সমঝোতা ইস্যুতে জল ঢাললেন অধীর  

এর ফলে পুনরায় পুলিশ বাহিনীর সঙ্গে ওই উন্মত্ত যুবকদের সঙ্গী-সাথী ও স্থানীয় বাসিন্দাদের ব্যাপক সংঘর্ষ বাধে। আর তাতেই গুরুতর জখম হয় সাব ইন্সপেক্টর সুরজিৎ মন্ডল, পুলিশকর্মী ওয়াসিম আকরাম, হাসিবুর রহমান, গোলাম মোস্তফা সহ আরও একজন। পুরো ঘটনায় চাপা উত্তেজনা তৈরি হয়েছে এলাকায়। এই ব্যাপারে জেলার উচ্চ পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন,'পুরো ঘটনার তদন্ত চলছে প্রয়োজনে আশেপাশের সিসিটিভি খতিয়ে দেখা হবে। এর বেশি তদন্তের স্বার্থে এখন কিছু বলা যাবে না।'