কৌশিক সেন, রায়গঞ্জ: টিকটকের নেশা ফের কাড়ল প্রাণ। নাচের ভিডিও বানাতে গিয়ে নদীতে তলিয়ে গেল কিশোর। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ। এবার ঘটনাস্থল, উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদের ভাসিডাঙায়।

আরও পড়ুন: গঙ্গায় ভেসে উঠল কিশোরের দেহ, পুলিশের জেরার মুখে বন্ধুরা

বয়স মোটে সতেরো বছর। দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র বিপুল সরকার। বাড়ি, হেমতাবাদের কসবামহাসো এলাকায়। বন্ধুদের সঙ্গে নিয়ে টিকটক ভিডিও বানানোর পরিকল্পনা করেছিল বিপুল। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, রবিবার বিকেলের পর যখন ভাসিডাঙা এলাকায় নাচের মহড়া চলছিল, তখনই আচমকাই পা হড়কে নদীতে পড়ে যায় বিপুল। নদীর ওই অংশে জলের পরিমাণ ছিল যথেষ্ট বেশি। চোখের নিমেষে তলিয়ে যায় ওই কিশোর। শেষপর্যন্ত পুলিশ উদ্ধার করে প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে, তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।  স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশের দাবি,  মৃতের সঙ্গে আরও যারা টিকটক ভিডিও-র জন্য নাচের মহড়া দিচ্ছিল, তাঁদের কেউই সাঁতার জানেনি। তাই বন্ধুর বিপদ দেখেও নদীতে নামেনি তারা। এলাকায় শোকের ছায়া।

আরও পড়ুন: খুলছে সমুদ্র সৈকতের হোটেল, মন্দারমণির পথেই কি হাঁটবে দিঘা

নেটদুনিয়ায় এখন টিকটক ভিডিও-র জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী। স্থান-কাল-পাত্র ভুলে অনেকেই এই ধরণের ভিডিও তৈরিতে মেতে ওঠেন। আর তাতেই ঘটে দুর্ঘটনা, প্রাণহানিও। দিন কয়েক আগে কলকাতায় মহাকরণের সামনে দাঁড়িয়ে টিকটক ভিডিও করছিলেন এক যুবক। এক মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তি তাড়া খেয়ে পালাতে গিয়ে পড়ে গিয়ে আহত হন তিনি।