নদিয়ার করিমপুরে বিজেপি প্রার্থী জয়প্রকাশ মজুমদারের সমর্থনে প্রচার করতে গিয়ে হেনস্থার মুখে অভিনেত্রী রিমঝিম মিত্র ও রূপাঞ্জনা মিত্র।  মঙ্গলবার রাতে কর্মিসভায় ঢুকে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা ওই অভিনেত্রীর সঙ্গে অশালীন আচরণ, এমনকী শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে বলে অভিযোগ।  ঘটনার প্রতিবাদে থানার সামনে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বিজেপি কর্মীরা। এদিকে এই ঘটনার পর রিমঝিম মিত্র ও রূপাঞ্জনা মিত্রকে তড়িঘড়ি কলকাতার রওনা করিয়ে দেন গেরুয়াশিবিরের নেতারা।

আগামী ২৫ নভেম্বর নদিয়ার করিমপুরে বিধানসভা উপনির্বাচন।  মঙ্গলবার রাতে করিমপুরের থানার পাড়া থানা এলাকার সবজির হাট ও তিলি পাড়ায় দলের প্রার্থী জয়প্রকাশ মজুমদারের সমর্থনে কর্মিসভার আয়োজন করে স্থানীয় বিজেপি নেতারা। কর্মিসভায় হাজির ছিলেন টেলি সিরিয়ালের দুই জনপ্রিয় অভিনেত্রী রিমঝিম মিত্র ও রূপাঞ্জনা মিত্র। কয়েক মাসে আগেই দু'জনেই আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন।  বিজেপির দাবি,  কর্মিসভায় ঢুকে রিমঝিম ও রূপাঞ্জনার সঙ্গে আশালীন আচরণ করেন কয়েকজন তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের। তাঁদের ধাক্কা দেওয়া, এমনকী শ্লীলতাহানিরও চেষ্টা করা হয়। কিন্তু ব্যবস্থা নেওয়া তো দূর, কর্মিসভার হাজির থাকলেও পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ।  বরং বিজেপি কর্মীরা যখন দুই অভিনেত্রীকে হেনস্তার প্রতিবাদ করেন, তখন পুলিশের সামনে তাঁদের উপর চড়াও হয় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। অন্তত তেমনই দাবি গেরুয়াশিবিরের। শেষপর্যন্ত কোনওমতে বিজেপির কর্মিসভা থেকে রিমঝিম মিত্র ও রূপাঞ্জনা মিত্রকে বের করে আনা হয়। তড়িঘড়ি তাঁদের রওনা করিয়ে দেন কলকাতায়।

এদিকে এই ঘটনার প্রতিবাদে মঙ্গলবার রাতে করিমপুরের থানারপাড়া থানা সামনে বিক্ষোভে শামিল হন বিজেপি কর্মীরা। অনেক রাত পর্যন্ত চলে বিক্ষোভ। এদিকে বিজেপি কর্মীর সভায় দুই অভিনেত্রীকে হেনস্থার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে তৃণমূল।