Asianet News BanglaAsianet News Bangla

“অনুব্রতকে এতদিন কেন গ্রেফতার করা হয়নি”, শাসকদলকে কড়া ভাষায় আক্রমণ অধীরের

একটি সাংবাদিক সম্মেলনে পশ্চিমবঙ্গ কংগ্রেসের প্রধান অধীর রঞ্জন চৌধুরী অভিযোগ করেন যে, তৃণমূল-সুপ্রিমো এবং দলের অন্যান্য নেতারা বহু বছর ধরে ক্ষমতার অপব্যবহার করছেন। চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, "মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৃণমূলের নেতারা কেলেঙ্কারিতে জড়িত।"

Adhir Ranjan Chowdhury attacked TMC Supremo Mamata Banerjee along with Anubrata Mondal in Cow Smuggling Case ANBSS
Author
কলকাতা, First Published Aug 11, 2022, 11:46 PM IST

পশ্চিমবঙ্গের শাসক শিবিরে একের পর এক জোরদার ধাক্কা। কেন্দ্রীয় সংগঠন যেন সাপের মত জড়িয়ে ফেলেছে রাজ্যের দুর্নীতিবাজদের। প্রথমে এস এস সি-র নিয়োগ দুর্নীতিতে ইডি-র হাতে ধরা পড়লেন প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, আর ঠিক তার ১৯ দিন পর সিবিআইয়ের জালে পড়লেন অনুব্রত মণ্ডল। 

বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সম্মেলনে এবিষয়ে মুখ খুলেছেন পশ্চিমবঙ্গ কংগ্রেসের প্রধান নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী। তিনি বলেছেন, তৃণমূল কংগ্রেস (টিএমসি) "চোরের দল" হয়ে উঠেছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ তৃণমূলের সব নেতা মন্ত্রীরা কেলেঙ্কারিতে জড়িত বলেও দাবি করেন তিনি।
তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য, "মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং টিএমসি নেতারা কেলেঙ্কারিতে জড়িত। বহু বছর ধরে তারা সরকারের অপব্যবহার করে আসছে। সরকার এবং পুলিশের সমর্থন ছাড়া এই ধরনের কেলেঙ্কারি সম্ভব নয়। আজ তৃণমূল চোরের দলে পরিণত হয়েছে।"

অধীর চৌধুরী আরও বলেন যে, শিক্ষক নিয়োগ কেলেঙ্কারি একটি ওপেন সিক্রেট এবং পশ্চিমবঙ্গের সবাই এখন এটির সম্পর্কে জানে। পার্থ চট্টোপাধ্যায় যখন ২০১৪-২০২১ সাল পর্যন্ত শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন, তখনই কথিত অনিয়মগুলি শিক্ষক নিয়োগে ঘটেছিল, তিনি যোগ করেছেন। তিনি আরও বলেন যে, এই কেলেঙ্কারিটি পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ওপর একটি "বিশাল দাগ" এবং মুখ্যমন্ত্রীর অবিলম্বে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে মন্ত্রীত্ব থেকে বরখাস্ত করা উচিত। আর্থিক তছরুপের সঠিক তদন্ত হলে তা একেবারে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দরজায় গিয়ে শেষ হবে বলেও দাবি কংগ্রেস নেতার। 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আজ গরু পাচার তদন্তে বীরভূমের তাবড় নেতা অনুব্রত মণ্ডল গ্রেফতার হয়ে যাওয়ার পর রাজ্যের শিক্ষক নিয়োগ এবং বাংলার গরু পাচার, উভয় কাণ্ডেই জড়িত হয়ে তীব্র অস্বস্তিতে রাজ্যের শাসকদল। দলের অন্দরের কুকীর্তি সম্পর্কে সেরকমভাবে মুখ খুলতে চাইছেন না কোনও নেতাই। এই মুহূর্তে বিরোধীদের একের পর এক কটাক্ষে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। বিজেপি ও বামেদের একাধিক নেতার পর এবার ঘাসফুল শিবিরকে একেবারে দলনেত্রীর নাম উল্লেখ করে বাক্যবাণে বিঁধলেন কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরীও।  


আরও পড়ুন-
'বাংলার মানুষ যা দেখছেন তা হিম শৈলের চূড়া মাত্র' - অধীর রঞ্জন চৌধুরী
'পথ দেখাচ্ছে বিহার'- বললেন কংগ্রেসের অধীর, লণ্ঠনধারীদের প্রস্তুত হতে নির্দেশ লালু কন্যার
'অনুব্রত যা করেছে তাই তাই করলে তৃনমূলে জায়গা পাওয়া যায় ' - মন্তব্য সিপিএমের

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios