বুদ্ধদেব পাত্র, পুরুলিয়া-বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি এখন মুকুল রায়। জাতীয় স্তরে দায়িত্ব পেয়েই রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। শনিবার দায়িত্বভার নেওয়ার পর প্রথম মুখ খুলেছিলেন হুগলিতে। সেখানে কৃষি বিলের সমর্থনে রাজ্যের কৃষকের বার্তা দিয়েছিলেন মকুল। এরপর, রবিবার পুরুলিয়ায় গেলেন তিনি। দলের কেন্দ্রীয় দায়িত্ব থেকে রাহুল সিনহাকে সরিয়ে দেওয়ায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করলেন তিনি। সেকথা অকপটে স্বীকার করলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

আরও পড়ুন-আমার করোনা হলে, মমতা ব্যানার্জীকে জড়িয়ে ধরব', দায়িত্ব পেয়েই অনুপমের নিশানায় মুখ্যমন্ত্রী

২০১৮-র পঞ্চায়েত নির্বাচন ফল থেকে পুরুলিয়ায় সুখা মাটিতে পদ্মফুট ফুটেছিল। তারপর, লোকসভা নির্বাচনেও শাসকদল তৃণমূলকে পিছনে ফেলে অভাবনীয় ফল করেছে বিজেপি। পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর পুরুলিয়ার মাটি শক্ত করতে উঠে পড়ে লেগেছে গেরুয়া শিবির। লোকসভা নির্বাচনের সময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সেখানে জনসভা করেছিলেন। এবার একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগেও বাংলাকে পাখির চোখ করেছে বিজেপি। এই অবস্থায় বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের দায়িত্বে পেয়েই পুরুলিয়ায় গেলেন মুকুল রায়। 

আরও পড়ুন-ত্রাণ না পেয়ে ক্ষোভ, দিনে দুপুরে বিডিও অফিস থেকে জিনিসপত্র লুঠ

রবিবার পুরুলিয়ায় সাংবাদিক সম্মেলনে বিজেপি নেতা রাহুল সিনহার ক্ষোভের কথা অকপটে স্বীকার করেন মুকুল। তিনি বলেন, ''রাহুল সিনহা বিজেপির মুখ। দীর্ঘ চল্লিশ বছর বিজেপির জন্য বাংলায় তিনি লড়াই করেছেন। সেক্ষেত্রে একটা লোকের তিরিশ বছরের রাজনৈতিক ইতিহাস কখনই একটা কথার উপর বিচার করা ঠিক নয়। আমি বিশ্বাস করি আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা মিটে যাবে''।  

তিনি আরও বলেন, ''বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতির দায়িত্ব আমাকে দেওয়া হয়েছে। সামনে রয়েছে বিহারের ভোট। তারপরই ভোট রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ এবং অসমে। তবে বাংলার প্রতি আমার একটা আলাদা দায়বদ্ধতা আছে''।