কৌশিক সেন, রায়গঞ্জ-বিডিও অফিসের তালা ভেঙে দিনে দুপুরে চলল লুঠপাট। রবিবার বিডিও অফিসে ছুটির দিনে এই ধরনের কাণ্ড দেখে হতবাক হলেন অনেকেই। বিডিও অফিসের তালা ভেঙে মজুত থাকা ত্রাণ সামগ্রী লুঠ করে নিয়ে যায় গ্রামবাসীরা। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুরের চোপড়ায়।

আরও পড়ুন-'আমার করোনা হলে, মমতা ব্যানার্জীকে জড়িয়ে ধরব', দায়িত্ব পেয়েই অনুপমের নিশানায় মুখ্যমন্ত্রী

জানাগেছে, রবিবার সকালে চোপড়ার মৃধাবস্তি এলাকার বাসিন্দারা বিডিও অফিসে এসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। বিডিও অফিস লক্ষ্য করে ইট পাটকেল ছুঁড়তে থাকে। গ্রামবাসীরা দফায় বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। এরপরই, ত্রাণ সামগ্রী মজুত থাকা ঘরের তালা ভেঙে ঘরে ঢুকে অবাধে লুঠপাট চালায়। বিডিও অফিসের গোডাউনে মজুত থাকা ত্রিপল, হাঁড়ি সহ অন্যান্য সামগ্রী লুঠ করে নিয়ে পালাতে শুরু করে। সেখানে উপস্থিত ছিল মহিলা থেকে নাবালকরাও। দিনে দুপুরে বিডিও অফিসের এই কাণ্ড কারখানা দেখে হতবাক হয়ে পড়েন সকলেই।

আরও পড়ুন-বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল, দায়িত্ব পেয়েই মুখ খুললেন কৃষি বিল নিয়ে

কিন্তু কী কারণে বিডিও অফিসে লুঠপাট চালালেন গ্রামবাসীরা? তাও আবার ত্রাণ সামগ্রী কেন? প্রশ্ন উঠতে শুরু করে প্রশাসনিক মহলে। জানাগেছে, কয়েকদিনের টানা বৃষ্টির জেরে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে উত্তর দিনাজপুরের চোপড়া এলাকায়। বৃষ্টিতে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মৃধাবস্তি এলাকা। ভারী বৃষ্টিতে ঘরবাড়ি ভেঙে পড়েছে। ওই এলাকার সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন। জলের তলায় জমির ফসল। চূড়ান্ত দুর্ভোগের শিকার গ্রামবাসীরা। এই অবস্থায় কিছু জনের ভাগ্যে ত্রাণ জুটলেও অনেকেই বঞ্চিত বলে অভিযোগ। এমনকি রান্না, খাওয়ার ব্যবস্থা টুকুও নেই বলে অভিযোগ। ত্রাণ সামগ্রী বিলিতে দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ করেন খোদ তৃণমূলের  উপপ্রধানের স্বামী মহম্মদ হানিফ। তা নিয়ে রবিবার বিডিও অফিসে গিয়ে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। পরে অফিসের তালা ভেঙে ত্রাণ সামগ্রী লুঠ করে নিয়ে যায় দুর্গতরা।

আরও পড়ুন-স্বপ্ন অধরাই রইল দ্বীপায়ন-মেধার, নিউটাউনের মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু যুগলের

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় চোপড়া থানার পুলিশ। ততক্ষণে বিডিও অফিস থেকে বহু ত্রাণ সামগ্রী লুঠ হয়ে গিয়েছে। ত্রাণ সামগ্রী লুঠপাটের ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ। পাশাপাশি, বৃষ্টির জেরে ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামে ত্রিপল সহ অন্যান্য ত্রাণ সামগ্রী বিলি করা শুরু হয়েছে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর।