চিনে বিষধর সাপ পাচারের অভিযোগ। এক সাপুড়ে জঙ্গল থেকে সাপ ধরে এনে ঘরের মধ্যে রাখতেন। পরে সেগুলিকে সুযোগ বুঝে ভিন রাজ্যে বা চিনে বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওই সাপুড়ের বাড়িতে হানা দেয় বন দফতরের কর্মীরা। সাপুড়ের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় দুটি সাপ!

আরও পড়ুন-পণের টাকা না মেলায় শ্বশুর বাড়িতে ফিরে বধূর দেহ উদ্ধার, বালিশ চাপা দিয়ে খুনের অভিযোগ

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি দক্ষিণ ২৪ পরগনার বকখালির ফ্রেজারগঞ্জ এলাকার। বন দফতর সূত্রে খবর, ওই এলাকার বাসিন্দা নিরাপদ মণ্ডল বিভিন্ন জায়গা থেকে সাপ ধরে আনত। পরে সেই সাপগুলিকে ভিন রাজ্যে অথবা বিদেশে মোটা টাকা মূল্যে বিক্রি করে দিত বলে অভিযোগ। মঙ্গলবার ওই নিরাপদ মণ্ডলের বাড়িতে হানা দিয়ে দুটি বিষধর সাপ উদ্ধার করে।

আরও পড়ুন-বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্কের মর্মান্তিক পরিণতি, প্রতিবেশীর ছেলে হাত-পা বেঁধে খুন, গ্রেফতার সিআরপিএফ

গ্রামবাসীদের দাবি, নিরাপদ মণ্ডল বিভিন্ন জায়গা থেকে সাপ ধরে আনত। বাড়িতে রেখে সেগুলির সেবা যত্ন করতেন বলে জানতেন তাঁরা। কিন্তু, বুধবার সকালে আসল সত্যটি জানতে পারেন গ্রামবাসীরা। তাঁরা জানান, বীরভূম থেকে দুজন লোক নিরাপদের কাছে আসে সাপ কেনার জন্য। গ্রামবাসীরা তাঁদের হাতে নাতে ধরে চারটি সাপ উদ্ধার করে। সেগুলি প্রত্যেকটি গোখরে সাপ। গ্রামবাসীরা নিজেরাই উদ্যোগ নিয়ে বকখালি বনদফতরে খবর দেন। বন দফতরের কর্মীরা ওই নিরাপদ মণ্ডলের বাড়িতে হানা দিয়ে আরও দুটি সাপ উদ্ধার করে।