এনআরসি-র জন্য বাড়িতে সমীক্ষা করতে এলে ঝাঁটা পেটা করার নিদান আগেই দিয়েছেন। এবার পরামর্শ থেকে সরে এসে সরাসরি হুঁশিয়ারিতে ফিরলেন অনুব্রত মণ্ডল। রবিবার রামপুরহাটের একটি জনসভা থেকে তাঁর হুঁশিয়ারি, এনআরসি বা নাগরিকত্ব আইনের জন্য কোনও সাইবার ক্যাফে-তে ফর্ম ভর্তি করা হলে সেখানকার কম্পিউটার  ভেঙে দেওয়া হবে।

নাগরিকত্ব আইন এবং এনআরসি- র বিরোধিতা করলেও আগামী ৮ জানুয়ারি ওই ইস্যুতে ডাকা বাম- কংগ্রেসের বনধের বিরোধিতা করেছেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি। তিনি জানিয়েছেন, পথে নেমেই বনধের বিরোধিতা করবে তৃণমূল। 

এ দিনও আগাগোড়া প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের মুণ্ডপাত করেন অনুব্রত। নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহকে 'মুর্খ', 'মাথামোটা' বলে কুরুচিকর আক্রমণও করেন তিনি। সভার শেষে তাঁকে প্রশ্ন করা হয়, নাগরিকত্ব আইনের জন্য যদি অনলাইনে তথ্য সংগ্রহ করা হয় তাহলে কীভাবে বিরোধিতা করবেন তিনি? নিজস্ব কায়দাতেই অনুব্রত হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, 'অনলাইনে ফর্ম পূরণ শুরু হলে মানুষ সাইবার ক্যাফে- তে গিয়ে কম্পিউটার ভেঙে দেবেন। আর যাঁরা অনলাইনে ফর্ম ভর্তি করার চেষ্টা করবেন সেই সমস্ত ক্যাফে মালিকদের মাথার চুল কেটে নেওয়া হবে। তবু নাগরিকত্ব আইন মানব না।'

এ দিনের সভা থেকে বিজেপি-র সঙ্গেই সিপিএম এবং কংগ্রেসকেও আক্রমণ করেছেন অনুব্রত। দুই দলের ডাকা সাধারণ ধর্মঘট নিয়ে অনুব্রত বলেন, 'ওদের সঙ্গে লোক নেই। ওরা ঘোলা জলে মাছ ধরার চেষ্টা করছে। আমরা ওই রাস্তায় হাঁটব না। কারণ মুখ্যমন্ত্রী বনধ, ধর্মঘটের বিরোধিতা করে আসছেন। তাই আমরা পথে নেমে বনধের বিরোধিতা করব।'