আশিষ মণ্ডল, বীরভূম:  লকডাউনের জেরে  কাজ হারিয়ে যখন বিপাকে পড়েছেন বহু মানুষ, তখন সুনির্দিষ্ট বেতন কাঠামো-সহ একাধিক দাবিতে আমরণ অনশনে বসলে শিক্ষাকর্মীরা। বুধবার তাঁদের অনশন তৃতীয় দিনে পড়ল। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের সিউড়ি বিদ্যাসাগর কলেজে।

আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় দুর্গোৎসব বন্ধের আর্জি, কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের জনস্বার্থ মামলা

বীরভূম জেলার বিভিন্ন কলেজে অস্থায়ী শিক্ষাকর্মী সংখ্যা নেহাতই কম নয়। চুক্তির ভিত্তি কাজ করছেন সকলেই। কিন্তু এভাবে আর কতদিন! চাকরির নিরাপত্তা-সহ একাধিক দাবি আদায়ের লক্ষ্যে এবার আমরণ অনশনে বসলেন অস্থায়ী শিক্ষাকর্মীরা। পশ্চিমবঙ্গ কলেজ ক্যাজুয়াল এমপ্লয়িজ সমিতির ব্যানারে অনশন চলছে সিউড়ি বিদ্যাসাগর কলেজের গেটে সামনে। সংগঠনের কার্যকারী সভাপতি অরুণ চট্টোপাধ্যায় বলেন, 'আমরা বীরভূম জেলায় বিভিন্ন কলেজ ১০-২০ বছর ধরে কাজ করছি। তা সত্ত্বেও সরকারের কাছ থেকে চাকরিতে স্থায়ীকরণের কোন নিশ্চয়তা পাইনি।' তাঁর আরও বক্তব্য, কলেজ পরিচালন সমিতি বিভিন্ন সময়ে অস্থায়ী কর্মীদের নানা কাজে নিয়োগ করে। কিন্তু বেতন মেলে সামান্যই। নিরুপায় হয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য আমরণ অনশনে বসেছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন:,'টায়ারের কনসেপ্টটা আগে কখনও শুনিনি', করোনা ইস্য়ুতে মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ বাবুলের

কতদিন এই কর্মসূচি চলবে? অনশনকারীদের সাফ কথা, সরকারের তরফে দাবি পূরণের বিষয়ে কোনও সুনির্দিষ্ট আশ্বাস মিলছে, ততদিন পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। মুখ্যমন্ত্রীর কাছে বিষয়টি সহানূভূতির সঙ্গে বিবেচনার করার আর্জি জানিয়েছেন আন্দোলনরত অস্থায়ী শিক্ষাকর্মীরা।