ফের কাটমানি খাওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় ঘর প্রাপকের কাছ থেকে এক দফা টাকা নেওয়ার অভিযোগ। পরে উপভোক্তার কাছ থেকে ফের টাকার দাবি করে ওই তৃণমূল নেতা। কাটমানি না দেওয়ায় ওই উপভোক্তাকে মারধর করার অভিযোগ।

আরও পড়ুন-মেডিক্যাল পরীক্ষায় গৃহশিক্ষকের ছেলের হ্যাটট্রিক, দরিদ্রতা জয় করে ৫৮৫ নম্বর মালদহের ছাত্রের

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের জলঙ্গির সাগরপাড়া এলাকায়। জানাগেছে, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় ঘলর পেয়েছিলেন খয়রামারি গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসিন্দা নজরুল ইসলাম। প্রধানমন্ত্রা আবাস যোজনায় প্রথম কিস্তির ষাট হাজার টাকা পেয়েছিলেন তিনি। অভিযোগ, সেসময় দশ হাজার কাটমানি নেয় তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য মোজাম্মেল হক। এই পর্যন্ত ঠিক ছিল। দ্বিতীয় কিস্তিতে ৫০ হাজার টাকা এলে ফের কাটমানি দাবি করে তৃণমূলের ওই পঞ্চায়েত সদস্য। আরও দশ হাজার টাকা কাটমানি দাবি করে বলে অভিযোগ। 

আরও পড়ুন-বিজেপির পালটা, বিশাল জনসভায় গেরুয়া ছেড়ে তৃণমূলে রাজ পরিবারের উত্তরসুরি

অভিযোগ, নজরুল ইসলাম দ্বিতীয়বার টাকা না দেওয়ায় বারবার টাকার জন্য চাপ দিতে থাকে মোজাম্মেল হক। সে টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় মোজাম্মেল ও তাঁর পরিবারের উপর হামলা করে বলে অভিযোগ। তাঁর উপর হামলার সুবিচার পেতে আইনের দ্বারস্থ হয়েছেন মোজাম্মেল।