বিয়ে করেছিলেন ভালোবেসে, কিন্তু দাম্পত্য সুখ অধরাই থেকে গেল। সপ্তাহ খানেকের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়ে গেল এক দম্পতির! শুনতে অবিশ্বাস্য লাগলেও, এমনই ঘটনা ঘটেছে মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়ায়। প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন বিবাহ বিচ্ছন্না ওই তরুণী।

আরও পড়ুন: কিশোরীকে খুন ও ধর্ষণ, বর্ধমানের 'চেন কিলার'-কে মৃত্যদণ্ড দিল আদালত

ঘটনাটি ঠিক কী? মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়া এলাকার গজনীপুরে থাকেন রাহুল জামান। দিন কয়েক আগে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন বছর কুড়ি ওই যুবক। অসুস্থতা এতটাই বাড়ে যে, তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়। হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে গিয়ে শুকতারা খাতুন নামে এক তরুণীর সঙ্গে পরিচয় হয় রাহুলের। শুকতারার বাড়ি মুর্শিদাবাদের সুতি থানার অরঙ্গাবাদে। ক্রমে ঘনিষ্টতা বাড়ে এবং শেষপর্যন্ত প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তাঁরা। গোল বাঁধল বিয়ের পর।

আরও পড়ুন: করোনার 'গোষ্ঠী সংক্রমণ', মালদহে আক্রান্তের সংখ্যা আটশো ছাড়াল

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, দুই পরিবারের সম্মতিতে জুন মাসের শেষের দিকে বিয়ে করেন রাহুল ও শুকতারা।  এরপর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে শুরু হয়। অশান্তি এমনই পর্যায়ে পৌঁছয় যে, বিয়ের পর সপ্তাহ ঘুরতে না ঘুরতেই সদ্য বিবাহিতা স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন রাহুল! ঘটনাটি জানাজানি হতেই শোরগোল পড়ে যায় এলাকায়। হতবাক হয়ে যান পাড়া-প্রতিবেশীরা। নবদম্পতির কেন এমন পরিণতি হল? বিবাহ-বিচ্ছেদের জন্য স্বামী ও তাঁর পরিবারের লোকেদের দায়ী করেছেন শুকতারা। এমনকী, থানায় অভিযোগও  দায়ের করেছেন তিনি।