জন্মের তিন দিনের মাথাতেই মারা গেল সদ্যোজাত সন্তান। কিন্তু সন্তান শোক ভুলে অনন্য উদ্যোগ নিলেন মৃত শিশুটির বাবা- মা। সদ্যোজাত সন্তানের কর্নিয়া দান করার সিদ্ধান্ত নিল পশ্চিম বর্ধমানের অণ্ডালের এক দম্পতি। 

যে সংস্থা ওই কর্নিয়া সংগ্রহ করেছে, সেই দুর্গাপুর ব্লাইন্ড রিলিফ সোসাইটির দাবি, ভারতে সম্ভবত প্রথমবার তিন দিনের সদ্যোজাত শিশুর কর্নিয়া দান হল। এর আগে এগারো দিনের শিশুর কর্নিয়া দানের নজির রয়েছে। 

আরও পড়ুন- ছবি তুলতে পঞ্চব্যঞ্জন, ক্যামেরা সরতেই গর্ভবতীরা পেলেন ডিম ভাত

অণ্ডালের বাসিন্দা ওই দম্পতির নাম দীপান্বিতা এবং অরূপ পান। কয়েকদিন আগেই দু্র্গাপুরের ওই বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন অন্তঃসত্ত্বা দীপান্বিতাদেবী। একটি পুত্রসন্তানের জন্ম দেন তিনি। কিন্তু জন্ম থেকেই শিশুটি শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় ভুগছিল। জন্মের পরেই চিকিৎসকেরা জানিয়েছিলেন, শিশুটির শরীরে রক্তে অ্যামোনিয়ার পরিমাণ অনেক বেশি।  শেষ পর্যন্ত রবিবার তার মৃত্যু হয়। এর পরেই শিশুটির কর্নিয়া দানের সিদ্ধান্ত নেন ওই দম্পতি। 

পেশায় রেলকর্মী অরূপবাবু বলেন, 'আমরা যা হারালাম তা তো আর ফিরে পাবো না। কিন্তু আমাদের সন্তানের চোখ দিয়ে যদি অন্য কোনও শিশুর দৃষ্টি ফেরানো যায় ,তার থেকে ভাল আর কিছু হবে না। তাই এই আমরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।'

সন্তান হারানোর শোকের মধ্যেও দম্পতির সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে দ্রুত উদ্যোগী হন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও। দুর্গাপুর ব্লাইন্ড রিলিফ সোসাইটির মাধ্যমে মৃত শিশুটির কর্নিয়া সংগ্রহ করে তা কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়।