শুভজিৎ পুততুণ্ড, বারাসত- করোনা, আমফান বিপর্যয় আগেই আধমরা করেছিল গ্রামবাসীদের। কিন্তু গত কয়েক দিনের দক্ষিণবঙ্গে টানা বৃষ্টির জেরে গ্রামবাসীরা এভাবেই সমস্যায় পড়বেন তা হয়তো এতটা ভাবেননি। ঘরের ভিতর জল ঢুকে উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটা ব্লকের ঝাউডাঙা গ্রাম পঞ্চায়েতেরে মেদের মাঠ এলাকায় এমনই চাঞ্চল্যকর ছবি দেখা গেল। গ্রাম জলমগ্ন হওয়ার কারনে নাভিঃশ্বাস অবস্থা গ্রামবাসীদের।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ গ্রাম থেকে প্রয়োজনের জন্য শহরে আসতে গেলে হাঁটুজল পেরোতে হয় গ্রামবাসীদের। কোনও জায়গায় যাতায়াতের একমাত্র উপায় হল নৌকা। শুধু তাই নয়, ঘরের মধ্য়ে জল ঢুকে যাওয়ায় খাটের উপরই তাঁদের সংসার করতে হচ্ছে বলেও অভিযোগ।

অন্যদিকে, মেদের মাঠ গ্রামে শেষ সম্বল বেঁচে ছিল একমাত্র জমির ফসল। কিন্তু নদীবাঁধ ভেঙে সেখানেও জল ঢুকে চিন্তায় পড়েছেন গ্রামবাসীরা। কয়েক লক্ষ টাকা খরচ করে পটল, ধান, পাট চাষ সম্পূর্ণ জলের তলায়। ঘরের মধ্যে শুকনো খাবার ছাড়া আর কিছু বেঁচে নেই। ঘরের মধ্য়ে জল ঢোকায় বেড়েছে সাপের উপদ্রপ। সাপের আতঙ্ক রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছে বলেও দাবি গ্রামবাসীদের।

আরও পড়ুন-শিশুদের জন্য মনোরম পরিবেশ, যৌন নির্যাতনের বিচারে হাওড়া আদালতে চালু হল আলাদা পসকো কোর্ট রুম

প্রতিবছর বর্ষার সময় এই ঘটনা ঘটায় সাধারণ মানুষরা সমস্য়ায় পড়েছেন বলে অভিযোগ গ্রামবাসীদের। প্রশাসন থেকে সেভাবে সাহায্য মেলে না বলেও অভিযোগ করেন তাঁরা।