Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Dead Body: মাছ ধরতে গিয়ে কিশোরের চোখের সামনে ভেসে উঠল যুবকের দেহ, বিক্ষোভ স্থানীয়দের

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গ্রামের মাঠের দিকে থাকা ভেড়িতে এক কিশোর মাছ ধরার জন্য ছিপ নিয়ে গিয়েছিল। কিন্তু, সেখানে দেহ ভাসতে দেখে ভয় পেয়ে গ্রামে ফিরে যায় সে। 

Dead Body recovered from pond in Murshidabad bmm
Author
Kolkata, First Published Nov 17, 2021, 10:34 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

ভেড়িতে মাছ (Fish) ধরতে গিয়ে মাছের পরিবর্তে জলে ভেসে উঠল যুবকের দেহ (Body Recovered)। এই ঘটনার কথা চাউর হতেই বুধবার ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় মুর্শিদাবাদের (Murshidabad) প্রত্যন্ত শিরিষতলা এলাকায়। পরে অবশ্য দেহ শনাক্ত (Identify) করা সম্ভব হয়েছে। জানা গিয়েছে, মৃত যুবকের নাম সানোয়ার আনসারি। আর যুবকের পরিচয় জানার পর আরও জটিল হয়ে যায় পরিস্থিতি। উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গোটা এলাকা।

সানোয়ারের বাড়ি ওই গ্রামের কারিগরপাড়ায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গ্রামের মাঠের দিকে থাকা ভেড়িতে এক কিশোর মাছ ধরার জন্য ছিপ নিয়ে গিয়েছিল। কিন্তু, সেখানে দেহ ভাসতে দেখে ভয় পেয়ে গ্রামে ফিরে যায় সে। এরপর গোটা বিষয়টি স্থানীয়দের জানায়। তার কথা শুনে স্থানীয় বাসিন্দারা সেখানে গিয়ে দেখেন পুকুরে (Pond) একটি দেহ ভাসছে। কিছুক্ষণের মধ্যেই জানা যায়, ওই যুবকই কয়েকদিন আগে নিঁখোজ হয়েছিলেন। এরপর থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ (Police) এসে দেহটি পুকুর থেকে তোলে। তারপর তা ময়নাতদন্তের (Post Mortem) জন্য পাঠানো হয়। 

আরও পড়ুন- শীতের দেখা মিলছে না বঙ্গে, সপ্তাহান্তে বৃষ্টির পূর্বাভাস কলকাতায়

Dead Body recovered from pond in Murshidabad bmm

আরও পড়ুন- অতিরিক্ত ক্ষমতা দেয়নি কেন্দ্র, পুলিশের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখার বার্তা বিএসএফের

কিন্তু, সেই সময় ভেরি পাশেই পুলিশের সঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দাদের বচসা বেধে যায়। স্থানীয়দের দাবি, সানোয়ারকে রীতিমতো পরিকল্পনা করে খুন করে মাছের ভেড়ির পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়েছে। যদিও নিঁখোজ ডায়েরি করার পরও পুলিশ কেন ওই যুবককে খোঁজার চেষ্টা করেনি তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তাঁরা। এরপরই দেহ তুলে গ্রামের রাস্তার শিরিষতলার কাছে তা ফেলে রেখে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই ওই রাস্তায় প্রচুর লোকজন জড়ো হন। ফলে সম্পূর্ণ অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে রাস্তা। পরে পুলিশের আশ্বাসে ওঠে বিক্ষোভ। মৃতের পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, সানোয়ার ছোট গাড়ি চালাতেন। মাত্র দু’মাস আগে তাঁর বিয়ে হয়। দিন কয়েক আগে তিনি বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। এরপর থেকে আর তাঁর কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। থানায় নিঁখোজ ডায়েরিও করেন পরিবারের সদস্যরা। সারোয়ারকে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ পরিবারের। 

আরও পড়ুন- তারাপীঠে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল মুখ্যমন্ত্রীর উদ্বোধন করা সৌর উনুন, আহত ৪

পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, গ্রামেরই এক যুবক সানোয়ারের কাছে সামান্য কয়েক হাজার টাকা পাওনা রয়েছে বলে জানিয়েছিল। তা আদায় করার জন্য বারবার হুমকি দিচ্ছিল। সেই কথাও পুলিশকে জানানো হয়েছিল। মৃতের মা নাফিজা বিবি বলেন, "গ্রামেরই এক যুবক ছেলের কাছে আড়াই হাজার টাকা চাইতে বাড়িতে এসেছিল। টাকা না পেলে সে আমাদের সামনেই ছেলেকে খুন করার হুমকি দিয়েছিল। পুলিশকে সেকথা আগেই জানিয়েছি। কিন্তু, পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি।" যদিও ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios