রাজ্য জুড়ে তাণ্ডব থামাতে এবার পাল্টা প্রতিরোধের হুমকি দিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। রাজ্যকে হুঁশিয়ারি দিয়ে তাঁর বার্তা, সরকার যদি পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণে না আনতে পারে তাহলে তাঁরাই রাস্তায় নামবেন। এ দিন জেলা সভাপতিদের সঙ্গে আলোচনাতেও একই বার্তা দিয়েছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। 

দিলীপবাবু এ দিন অভিযোগ করেন, দেশের আইনের বিরুদ্ধে কথা বলে মুখ্যমন্ত্রী নিজেই সংবিধান বিরোধী কাজ করেছেন। এর বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার হুমকি দিয়েছেন দিলীপবাবু। তাঁর অভিযোগ, উস্কানি দি হিন্দু- মুসলিমদের মধ্যে সংঘাত বাঁধিয়ে দেওয়ার চক্রান্ত করেছে রাজ্যের শাসক দল। মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে দিলীপবাবু বলেন, 'সমাজবিরোধীদের হাতে গত দু' দিন ধরে গোটা রাজ্যকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। যে অনুপ্রবেশকারীরা এতদিন এ রাজ্যে ঢুকে কংগ্রেস, সিপিএম, তৃণমূলকে ভোট দিয়েছে, তারাই এখন এই তাণ্ডব চালাচ্ছে। এ ভাবে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে মার খাওয়া যায় না। সরকার যদি না পারে তাহলে আমরাই এবার প্রতিরোধ গড়ে তুলব।'

আরও পড়ুন- বহিরাগতদের দিকে আঙুল মুখ্যমন্ত্রীর, উপদ্রুত জেলায় বন্ধ হল ইন্টারনেট

আরও পড়ুন- মুখ্য়মন্ত্রীর নির্দেশেই অশান্তি, সরাসরি মমতাকেই দায়ী করছেন লকেট

দিলীপবাবু এ দিন দাবি করেন, পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা যে মুসলিমরা রয়েছেন, তাঁদের আশঙ্কার কোনও কারণ নেই। শুধুমাত্র অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

বিজেপি রাজ্য সভাপতি জানিয়েছেন, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন পাশের জন্য প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে জেলা জেলায় সভা করবেন তাঁরা। পাশাপাশি আগামী ২৩ ডিসেম্বর কলকাতায় এক লক্ষ মানুষকে নিয়ে মিছিল করার কথা জানিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। ওই মিছিল থেকেই কেন্দ্রীয় সরকারকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হবে।