সম্পত্তির জন্য মা ও ভাইয়ের উপর হামলা বড় দাদার। ঘটনাটি ঘটেছে  উত্তর চব্বিশ পরগনার হাবড়া থানার খারো নিমতলা এলাকায়।  জানা গেছে, সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই বিবাদ চলছিল দুই ভাইয়ের মধ্যে। ঘটনার দিন ভাই সুব্রত মণ্ডল নিজের ঘরে খাবার খাচ্ছিলেন। সেই সময় পেছন দিক থেকে এসে আচমকাই তার উপর হামলা চালায় দাদা শঙ্কর মণ্ডল। লোহার রহ দিয়ে  সুব্রতর মাথার উপর বেশ কয়েকবার আঘাত করে শঙ্কর।

শঙ্করের রোষের হাত  থেকে রেহাই পাননি বৃদ্ধা মা সুমিত্রা মণ্ডলও। চিৎকার শুনে বেরিয়ে এলে শঙ্কর তার মাকেও মারধর করে বলে অভিযোগ। প্রতিবেশীর তরিঘড়ি দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি করে হাবড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে। সুব্রত মাথায় ২৮টি সেলাই দিতে হয়, আর মা সুমিত্রা মণ্ডলের মাথায় পড়ে ৮টি সেলাই। বর্তমানে হাবড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

অভিযুক্ত শঙ্কর মণ্ডলের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে হাবড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্তে নেমে ইতিমধ্যে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয় লোহার রডটিও।