ভিন জেলা থেকে পিকনিক করতে গিয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়ল পর্যটক বোঝাই একট। দাঁড়িয়ে ধাক্কা গাড়িতে ধাক্কা মারে বেপরোয়া পাথর বোঝাই লরি। দুর্ঘটনার জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হয় গাড়িটি। ঘটনাস্থলেই বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়। আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের রেজিনগরে। জখম পর্যটকদের উদ্ধার করতে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ।

আরও পড়ুন-স্বস্তির মাঝেও কাঁটা, ফের হাসপাতালে ভর্তি হতে হবে সৌরভকে

পুলিশ সূত্রে খবর, পড়শি জেলা নদিয়া থেকে মুর্শিদাবাদে পিকনিক করতে গিয়েছিলেন ১৫-১৬ জনের একটি দল। নিজেদের প্রয়োজনে  রেজিনগর ও বেলডাঙা থানার মাঝে গাড়ি থামিয়ে কয়েকজন নামেন। সেই সময়ই আচমকা উলটো দিক থেকে আসা বেপরোয়া একটি পাথর বোঝাই ট্রাক ধাক্কা দেয় পিকআপ ভ্যানটিতে। ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয় গাড়িটি। বিকট আওয়াজ ও যাত্রীদের কান্না শুনে স্থানীয়রা তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে ছুটে আসে উদ্ধার কাজের জন্য। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ও স্থানীয়রা তড়িঘড়ি আহত ১০ জনকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। সেখানেই চিকিৎসকরা তাঁদের ৪ জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। আবার কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় অন্যত্র স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন-নাছোড় লড়াইয়ে উৎখাত করেছেন বাম শাসনকে, রাজনীতির ইতিহাসে মমতা মানে এক প্রতিবাদী চরিত্র 

পুলিশ জানিয়েছে, ইতিমধ্যেই ঘাতক লরিটিকে আটক করা হয়েছে। বেপরোয়া গতির কারণেই এই দুর্ঘটনা নাকি ট্রাকটিতে যান্ত্রিক কোনও কারণ, ছিল তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।পড়শি জেলা নদীয়া থেকে পিকনিক করতে মুর্শিদাবাদে আসার পথে এই দুর্ঘটনা ঘটে। মৃতদের নাম, সূর্য মালাকার, সোমা দাস মালাকার, শিল্পী মণ্ডল, ইলা সরকার। মৃতেরা প্রত্যেকেই একই পরিবারের সদস্য বলে প্রাথমিকভাবে জানা যায়।