কার্তিকের লড়াইকে কেন্দ্র করে আনন্দে মেতে উঠেছিলেন সকলেই। আচমকাই বিস্ফোরণের বিকট শব্দে কেঁপে উঠল এলাকায়। ঘটনাস্থলেই মারা গেলেন একজন। বিস্ফোরণে আহত শিশু, মহিলা-সহ কমপক্ষে ২৫ জন।  আহতেরা ভর্তি হাসপাতালে, সকলেই শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এমনই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটল মুর্শিদাবাদে বেলডাঙায়।

কার্তিক পুজোকে কেন্দ্র করে বিনোদনের হরেক আয়োজন। মুর্শিদাবাদের বেলডাঙার  আন্ডিরণ গ্রামে জমজমাট কার্তিকের লড়াই। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গ্রামের একটি মাঠে কার্তিকের লড়াই দেখতে ভিড় করেছিলেন বহু মানুষ। সেখানে কার্যত তিলধারণেরও জায়গা ছিল না। মেলার মাঠে বসেছিল রকমারি খাবার দোকান ও গ্যাস বেলুনের দোকান।  প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, যে মাঠে কার্তিকের লড়াই হচ্ছিল, সেই মাঠ লাগোয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে রাস্তায় গ্যাস বেলুন বিক্রি হচ্ছিল। যিনি বিক্রি করছিল, তাঁর অসাবধানতাতেই গ্যাসের সিলিন্ডারে বিস্ফোরণ ঘটে। বিকট শব্দে কেঁপে ওঠে এলাকা।  আতঙ্কে ছোটাছুটি করতে শুরু করেন সকলে। আহতদের তড়িঘড়ি নিয়ে যাওয়া হয় বেলডাঙা হাসপাতালে। হাসপাতালে বক্রেশ্বর মণ্ডল নামে একজনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।  বাকী যাঁরা আহত হয়েছেন, তাঁদের শারীরিক অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানা গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত যা খবর, আহতদের মধ্যে একজনকে স্থানান্তরিত করা হয়েছে বহরমপুরে, মুর্শিদাবাদ জেলা হাসপাতালে। শোকের ছায়া নেমেছে মুর্শিদাবাদের বেলডাঙার আন্ডিরণ গ্রামে। 

উল্লেখ্য, সোমবার গভীর রাতে হাওড়ার জগৎবল্লভপুরে কার্তিক বিসর্জনের শোভাযাত্রায় মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান এক মহিলা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, গাছের তলায় কার্তিককে বসিয়ে ফেরার পথে সবার অলক্ষ্যে জেনারেটর ভ্যানের উঠে পড়েছিলেন তিনি। জেনারেটরে চুল আটকে মারা যান ওই মহিলা।