দ্বৈপায়ন লালা, মালদহ: খুন নাকি আত্মহত্যা? বাড়ি লাগোয়া একটি ঘর থেকে উদ্ধার হল তৃণমূলের প্রাক্তন পঞ্চায়েত সদস্যের ঝুলন্ত দেহ। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালদহের গাজোলে। তদন্তে নেমেছে পুলিশ। 

আরও পড়ুন: 'পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্র বিপন্ন', কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ রাজ্যপালের

মৃতের নাম এহসানুল হক। বাড়ি, গাজোলের বড়গাছী ওয়ান গ্রাম পঞ্চায়েতের রায়দিঘি এলাকায়।  একসময়ে ওই পঞ্চায়েতের তৃণমূল সদস্য ছিলেন এহসানুল। স্থানীয় সূত্রে খবর, তাঁর বাড়িতে ব্যাঙ্কের একটি শাখা চালু হয়েছে। সেখানে কর্মরত ছিলেন প্রাক্তন পঞ্চায়েত সদস্য। স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে থাকতেন তিনি। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, রোজকার মতোই মঙ্গলবার রাতেও খাওয়া-দাওয়া সেরে নিজের ঘরে ঘুমোতে চলে যান এহসানুল। এরপর রাতে তাঁকে ঘরে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করতে শুরু করেন বাড়ির লোকেরা। তখন বাড়ির লাগোয়া একটি ঘরে ওই তৃণমূল নেতার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান তাঁরা। 

আরও পড়ুন: পুজোয় দিদির বাড়িতে এসে বেঘোরে মৃত্যু, নদীতে তলিয়ে গেল দুই বোন

এদিকে এই ঘটনাটি জানাজানি হতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় গাজোল থানার পুলিশ। দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়। তবে কীভাবে এমনটা ঘটল, তা ধন্দে পরিবারের লোকেরা।