Asianet News BanglaAsianet News Bangla

মেচেদার পাইকারি মাছ বাজারে পৌঁছাল পদ্মার ইলিশ, খুশি ব্যবসায়ীরা

মেচেদা পাইকারি মাছ আড়তে এল কয়েক টন পদ্মার ইলিশ। ৮০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ মাছের দাম ৮০০ টাকা, ১ কেজি ওজনের দাম ১০০০ টাকা, ১৫০০ কেজির দাম ১ হাজার ৫০০ টাকা। 

hilsa of padma reached in Mecheda wholesale fish market today bmm
Author
Kolkata, First Published Sep 27, 2021, 1:34 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

পুজোর আগে ভোজন রসিকদের বাঙালিদের আনন্দ দিতে ইতিমধ্যের রাজ্যে এসে পৌঁছে গিয়েছে পদ্মার ইলিশ মাছ। পেট্রাপোল সীমান্ত (Petrapole border) দিয়ে ট্রাক (Truck) বোঝাই করে ওই মাছ বাংলায় এসে পৌঁছেছে। এরপর সেখান থেকে বিভিন্ন ট্রাকে করে ওই মাছ পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে রাজ্যের বিভিন্ন বাজারে। এভাবেই আজ মেচেদায় (Mecheda wholesale fish market) মাছের আড়তে কয়েক টন পদ্মার ইলিশ (Hilsa) পৌঁছে গিয়েছে। 

কথায় আছে মাছে ভাতে বাঙালি (Bengali)। মাছ না খেলে বাঙালির ভাত খাওয়া যেন জমে না। আর সেটা যদি ইলিশ হয় তাহলে তো কোনও কথাই নেই। ছুটির দিনের দুপুরের খাওয়াটা একেবারেই জমে যায়। কিন্তু, গত দুবছর ধরে দিঘার ইলিশের তেমন দেখা পাওয়া যায়নি। নিম্নচাপের জন্যে সমুদ্রে মাছ ধরতে গেলেও খালি হাতে ফিরতে হয়েছে ট্রলারগুলিকে। বাজারে এখন যে ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে তাও আবার আকারে ছোট। সেটাও আবার লুকিয়ে চুরিয়ে বিক্রি হচ্ছে। সেই কারণেই গত দু'বছর ধরে বাঙালির পাতে ঠিক মতো ইলিশের দেখা পাওয়া যাচ্ছিল না। 

hilsa of padma reached in Mecheda wholesale fish market today bmm

আর ঠিক সেই সময়ই মেছেদা পাইকারি মাছ আড়তে এল কয়েক টন পদ্মার ইলিশ। ৮০০ গ্রাম ওজনের মাছের দাম ৮০০ টাকা, ১ কেজি ওজনের দাম ১০০০ টাকা, ১৫০০ কেজির দাম ১ হাজার ৫০০ টাকা। 

আরও পড়ুন- বনধের প্রভাব পড়ল না কলকাতায়, সকাল থেকেই সচল জনজীবন

এ প্রসঙ্গে মেচেদা ফিস মার্চেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি তথা পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ সিরাজ খান বলেন, "দু'বছর ধরে সেভাবে ইলিশের দেখা মেলেনি। বারে বারে নিম্নচাপের জন্য খালি হাতে ফিরে আসতে হয়েছে সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়া মৎস্যজীবীদের। বাংলাদেশ থেকে কয়েক টন ইলিশ মাছ মেচেদা পাইকারি মাছের আড়তে আশায় খুশি ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে ক্রেতারা।" 

আরও পড়ুন- মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলে, দেড় বছর ধরে গোয়াল ঘরের পাশে শিকল দিয়ে বেঁধে রেখেছেন বৃদ্ধ দম্পতি

‌২২ সেপ্টেম্বর পেট্রাপোল সীমান্ত দিয়ে ১৪ টি ট্রাকে করে ইলিশ প্রবেশ করেছে রাজ্যে। তারপর সেখান থেকে ট্রাক বদলে রাজ্যের বিভিন্ন বাজারের উদ্দেশ্যে সেগুলি রওনা দেয়। ইতিমধ্যেই তা হাওড়া ও কলকাতায় পাইকারি মাছের বাজারে পৌঁছে গিয়েছে। 

আরও পড়ুন- পুলিশের পরীক্ষা দিতে গিয়ে ভয়াবহ দুর্ঘটনা, অধ্যাপকের গাড়ির ধাক্কায় পা ভাঙল পরীক্ষার্থীর

hilsa of padma reached in Mecheda wholesale fish market today bmm

একসময় বর্ষার শুরু থেকেই প্রতিদিন টন টন ইলিশ আমদানি হত ভারতে। কোটি কোটি টাকার ব্যবসা হত। গত কয়েক বছর ধরে এদেশে বাংলাদেশের ইলিশ আসা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের নিষেধাজ্ঞার জেরে এতদিন সেই ইলিশের স্বাদ গ্রহণ করতে পারেননি বাংলার ভোজনরসিক বাঙালি। অনেক আবেদনের পর গত বছর পুজোর আগে ২ হাজার মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে রপ্তানি করার অনুমতি দিয়েছিল বাংলাদেশ সরকার (Bangladesh Governtment)। এবছরও ঠিক দুর্গা পুজোর (Durga Puja) আগে ইলিশ রপ্তানিতে অনুমতি দিয়েছে সে দেশের সরকার। তবে সেই অনুমতি খুব সহজে মেলেনি। অনেকবার অনুরোধ করা হয়েছে। তারপরই সেই আবেদনে সাড়া দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। 

Heavy Rain fall  forecast  in Kolkata and North Bengal due to the deep depression on 22 September RTB

Heavy Rain fall  forecast  in Kolkata and North Bengal due to the deep depression on 22 September RTB

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios