পরপর চারটি কন্যা সন্তান হওয়ায় স্ত্রীকে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। গত সপ্তাহে কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন আক্রান্ত গৃহবধূ। অভিযোগ, পর পর চারটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেওয়ায় স্ত্রীকে শাবল দিয়ে খুনের চেষ্টা করে স্বামী। শাবলের আঘাতে গুরুতর জখম হন তিনি।

আরও পড়ুন-ফের প্রকাশ্যে বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দল, দলীয় কার্যালয়ে তালা ঝোলাল দলের একাংশ

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের ইংরেজবাজারের এনায়েতপুরে। ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামীকে গ্রেফতার করেছে এনায়েতপুর থানার পুলিশ। গুরুতর আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্বামীর হাতে আক্রান্ত ওই গৃহবধূকে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন আক্রান্ত গৃহবধূর পরিজনরা। এদিকে, সেই সময় স্ত্রীকে খুনের চেষ্টার অভিযোগে ধৃত স্বামীকে মালদহ মেডিক্যালে আনা হয় স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য। সেই প্রিজন ভ্যানে আটকে থাকা অভিযুক্ত স্বামীকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান রোগীর পরিজনরা।

আরও পড়ুন-মন্ত্রিত্ব ছাড়ার পর আজ শুভেন্দুর প্রথম সভা মহিষাদলে, তাঁকিয়ে সারা বাংলা

জানাগেছে, আক্রান্ত গৃহবধূর বয়স চব্বিশ। বছর দশেক আগে মানিকচকের এনায়েতপুরের বাসিন্দা ইমরান শেখের সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। বিয়ের পর পরপর তিনটি সন্তানের জন্মদেন তিনি। এরপর, গত সপ্তাহে আরও এক কন্য়া সন্তানের জন্ম দেন তিনি। অভিযোগ, এর জেরে ভিতরে ভিতরে স্ত্রীর প্রতি ক্ষুব্ধ ছিলেন স্বামী। রবিবার শাবল দিয়ে স্ত্রীকে খুনের চেষ্টা করে স্বামী। ঘটনার জেরে তীব্র উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। অভিযুক্ত স্বামীর ফাঁসির দাবি জানিয়েছেন আক্রান্ত গৃহবধূর সদস্যরা।