Asianet News BanglaAsianet News Bangla

গুলি চালানো শেখাতে গিয়ে ভাড়াটিয়াকে খুন, গ্রেফতার বাড়ি মালিক

  • ভাড়াটিয়াকে গুলি করে খুনের অভিযোগ বাড়িমালিকের বিরুদ্ধে
  • মুর্শিদাবাদের ডাকবাংলা গ্রামের ঘটনা
  • অভিযুক্ত মিনারুল শেখকে গ্রেফতার করে পুলিশ
  • ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়
landlord allegedly killed tenant in murshidabad bmm
Author
Kolkata, First Published Jun 28, 2021, 6:55 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

ভাড়াটিয়াকে গুলি করে খুন করার অভিযোগ উঠল বাড়িমালিকের বিরুদ্ধে। মৃতের নাম প্রত্যয় ভট্টাচার্য(৩২)। ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের ডাকবাংলা গ্রামে। ঘটনার পরই অভিযুক্ত মিনারুল শেখকে গ্রেফতার করে পুলিশ। যদিও পিস্তল এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। 

আরও পড়ুন- "রাজ্যপাল দুর্নীতিগ্রস্ত, হাওয়ালা জৈন মামলার চার্জশিটে নাম ছিল", বিস্ফোরক মুখ্যমন্ত্রী.

প্রত্যয়ের আদি বাড়ি বারাসতে। পেশায় একজন মোবাইল টেকনিশিয়ান। তাঁর বাবা যুব কল্যাণ দফতরের এক কর্মী। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতের বাবা দেবাশিস ভট্টাচার্য চাকরি সূত্রে প্রায় আড়াই বছর আগে মুর্শিদাবাদে আসেন। সেই সময় থেকেই তাঁরা মিনারুল শেখের বাড়িতে ভাড়া ছিলেন। এরপর মাস কয়েক আগে দেবাশিসবাবু পরিবার নিয়ে ডাকবাংলা গ্রামে এসে থাকতে শুরু করেছিলেন। সেখানে আসার পরই ছেলের জন্য মিনারুলের থেকে একটি দোকানঘর ভাড়া নেন। ওই দোকানটি মিনারুলের বাড়ি থেকে প্রায় কয়েকশো মিটার দূরে অবস্থিত।

আজ সকালে আচমকা সেই দোকান থেকে একটি বিকট আওয়াজ পান স্থানীয় বাসিন্দারা। এরপরই দোকানের পাশে থাকা একটি ঘর থেকে প্রত্যয়কে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এদিকে ছেলে বাড়ি ফিরছে না দেখে তাঁকে ফোন করেন প্রত্যয়ের বাবা। কিন্তু, ছেলে ফোন না ধরায় মিনারুলকে ফোন করেন। এরপর তাঁকে দোকানে যেতে বলে মিনারুল। সেখানে গিয়ে ছেলেকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পান। সঙ্গে সঙ্গে প্রত্যয়কে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। তারপরেই মিনারুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। কিন্তু, কথায় অসঙ্গতি থাকায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। ওই যুবককে সে গুলি করে হত্যা করেছে বলে পুলিশি জেরায় স্বীকার করে মিনারুল। 

আরও পড়ুন- বিধানসভায় উপস্থিত, অথচ নেই সর্বদলীয় বৈঠকে, শুভেন্দুর আচরণ জল্পনা বাড়াচ্ছে

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, দোকান ভাড়া নেওয়ার পর প্রত্যয়ের সঙ্গে মিনারুলের বন্ধুত্ব হয়েছিল। কয়েক বছর আগে মিনারুল একটি নাইন এমএম পিস্তল কিনেছিল। সেই পিস্তলটি প্রত্যয়কে দেখাচ্ছিল সে। কিন্তু, সব গুলি বের করে নেওয়ার পরও একটি গুলি থেকে গিয়েছিল। আর প্রত্যয়কে গুলি চালানো দেখাতে গিয়েই বাধে বিপত্তি। সেই গুলি গিয়ে লাগে প্রত্যয়ের বুকে। ঘটনাস্থানেই লুটিয়ে পড়েন তিনি। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios