নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছিল। শহরতলি এলাকায় ট্রেন চলাচল শুরু হলেও পরের ধাপে ছাড়িয়ে যায় গ্রামাঞ্চলে। তবুও কিছু ডিভিশনে ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। এবার সেইগুলিতে ট্রেন টচালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে রেলমন্ত্রক। আগামী ১৪ ডিসেম্বর থেকে আদ্রা ডিভিশনে ট্রেন চলাচল শুরু হচ্ছে।

আরও পড়ুন-বড়সড় সুখবর, ভালো আছেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, শীঘ্রই মিলতে পারে ছুটি

আদ্রা ডিভিশনে ট্রেন চলাচল সম্পর্কে রেলের তরফে জানানো হয়েছে, এই শাখাতে সোমবার থেকে চালু হচ্ছে লোকাল ট্রেন। চারটি স্পেশাল ট্রেনকে মেল ও প্যাসেঞ্জার ট্রেনে পরিবর্তিত করা হচ্ছে। এরফলে বাড়তি ভাড়া দিয়েই যাত্রীতদের সফর করতে হবে। যে সব ট্রেন গুলি চলতে শুরু করছে, সেগুলি হল, চক্রধরপুর-পুরুলিয়া-আদ্রা-হাওড়া, বোকারো-সাঁওতালডিহি-হাওড়া, আসানসোল-আদ্রা-খড়গপুর, খড়গপুর-আদ্রা গোমো প্যাসেঞ্জার চারটি মেল ও এক্সপ্রেস ট্রেনে পরিবর্তন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন-'ভাবিয়া করিও কাজ, করিয়া ভাবিও না', নাড্ডার কনভয়ে হামলা নিয়ে কী বললেন সায়ন্তন

প্যাসেঞ্জার ট্রেন গুলিকে মেল বা এক্সপ্রেস ট্রেনে পরিবর্তিত করায় সমস্যায় পড়ছেন যাত্রীরা। কেননা মেল বা এক্সপ্রেস ট্রেনের জন্য বাড়তি ভাড়া দিতে হবে তাঁদের। ওইসব এলাকায় প্রান্তিক ও গরিব মানুষ খুব সমস্যায় পড়বেন বলে জানিয়েছেন তাঁরা। ট্রেনের অতিরিক্ত ভাড়া নিয়ে, রেল তাঁর নৈতিক দায়বব্ধতা থেকে সরে আসছে বলে জানিয়েছেন রেলবোর্ডের চেয়ারম্যান বাসুদেব আচারিয়া। প্রসঙ্গত, আদ্রা ডিভিশনে ট্রেন চালানো নিয়ে বিক্ষোভ দেখানো হয়েছিল আদ্রা ডিভিশনের বিভিন্ন স্টেশনে। অবশেষে সেই সব জায়গায় ট্রেন চলাচল শুরু হওয়ায় খুশি যাত্রীরাও।