নয় বছর ফিরিয়ে দাও এই পোস্টার নিয়ে প্রেমিকার বাড়ির সামনে ধরনায় বসল প্রেমিক।  এমনই বিরল ঘটনার সাক্ষী থাকল বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর শহরের কাটানধার এলাকা। প্রেমিক বিষ্ণুপুরের কুরবান তলার বাসিন্দা রকি রজক । 

মঙ্গলবার দুপুর থেকে প্রেমিকার বাড়ির সামনে ধরনায় বসেছে প্রেমিক। প্রেমিকের হাতে পোস্টার ছাড়াও রয়েছে দুজনের বেশ কয়েকটি ছবি। যা নিয়ে নিজের প্রেমের প্রমাণ দিচ্ছে প্রেমিক। ধরনায় বসা প্রেমিকের দাবি, স্কুল থেকেই ওই যুবতীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয় তার। বাবা মারা যাওয়ায় পড়াশোনা হয়ে ওঠেনি। এখন ফলের ব্যবসা করেই রুজি রোজগার। কিন্তু শিক্ষাগত সার্টিফিকেট না থাকায় তার সঙ্গে এখন বিয়ে করতে চাইছে না প্রেমিকা। যার জন্য বাধ্য হয়েই ধরনায় বসতে হয়েছে তাকে।

রকি জানিয়েছে, নিজে ফলের ব্যবসা করে প্রেমিকাকে উচ্চশিক্ষিত করার চেষ্টা করে গেছে সে। বিভিন্ন সমস্যায় পাশে দাঁড়িয়েছে প্রেমিকার। আর্থিক সাহায্য় ছাড়াও  মোবাইল ফোন কিনে দিয়েছে তাকে। রকির দাবি, মাস দুয়েক আগে তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় ওই যুবতী। অন্যত্র বিয়ের কথা চিন্তা ভাবনা শুরু করে প্রেমিকার পরিবার। খবর পেয়েই  প্রেমিকার বাড়ির সামনে ৯ বছর ফিরিয়ে দিতে বলে রকি। লোকে যাতে বিশ্বাস করে তাই দুজনের ছবি নিয়ে ধরনায় বসে সে।  

এই বিষয়ে প্রেমিকার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাঁরা জানান, রকির সঙ্গে ওই যুবতীর কোনও সম্পর্ক ছিল না। পরিবারের দাবি, প্রেম তো দূর, পাল্টা রকিই তাদের মেয়েকে উত্যক্ত করত । যদিও প্রেমিকার পরিবারের এই অভিযোগ কানে তোলেনি প্রেমিক রকি। সে জানিয়েছে, প্রেমিকাকে না পাওয়া পর্যন্ত ধরনা চালিয়ে যাবে।