এনআরএস হাসপাতালে ষোলটি কুকুরছানাকে দুই নার্সের পিটিয়ে মারার স্মৃতি অনেকের মনেই এখনও টাটকা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ভিডিও-র সূত্র ধরেই সামনে এসেছিল নৃশংস ঘটনা। এবার সেরকমই এক ভাইরাল ভিডিও-র সূত্রে এফআইআর দায়ের হল কসবা থানা এলাকার এক বাসিন্দার বিরুদ্ধে। অভিযোগ একটি বেড়ালকে লাথি মারেন তিনি। 

অভিযুক্তের নাম প্রসেনজিত মিত্র ওরফে মিঠু। তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪২৮, ৪২৯ এবং পশুদের বিরুদ্ধে নিষ্ঠুরতা প্রতিরোধ আইন (১৯৬০)-এর  ১১(১)(এ)(বি) ধারায় মামলা করা হয়েছে। যদিও অভিযুক্ত এখনও পলাতক।

পুলিশ জানিয়েছে, জিনত মিত্র নামে এক বৃদ্ধার লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতেই এই পদক্ষেপ নিয়েছে পুলিশ। বোসপুকুর রোডের বাসিন্দা ওই বৃদ্ধার অভিযোগ, গত তিরিশে এপ্রিল তাঁর ফ্ল্যাটে এসে বেড়ালদের খাওয়ানো নিয়ে আপত্তি জানায় অভিযুক্ত। প্রসেনজিতের দাবি ছিল, বেড়ালদের আর খাওয়াতে পারবেন না ওই বৃদ্ধা। তিনি এই দাবিতে রাজি না হওয়াতেই তাঁর সামনে একটি বেড়ালকে ওই ব্যক্তি লাথি মারে বলে অভিযোগ। যার ফলে আহত হয় বেড়ালটি. গোটা ঘটনা মোবাইলে রেকর্ড করে রাখেন অভিযোগকারিণী। 

ওই বৃদ্ধা জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে তিনি পুলিশে বা কোনও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থারও সাহায্য চাননি। কিন্তু অভিযুক্ত ব্যক্তি বিষয়টি নিয়ে ফের গোলমাল পাকানোতেই তিনি তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছেন। 

অভিযোগকারিণীর রেকর্ড করা ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। সেই ভিডিও-র সত্যতা যাচাই করে দেখছে পুলিশ।