পরকীয়ার সম্পর্কে অন্তরায় হয়ে উঠেছিলেন স্ত্রী। কিন্তু শিশুটি কি অপরাধ করেছিল! দু'জনকে পিটিয়ে 'খুন' করল স্বামী। এরপর আত্মহত্যার বলে চালানোর জন্য মৃতদের গায়ে জড়িয়ে দিল বিদ্যুতের তার! ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়ায়। অভিযুক্ত পলাতক।

আরও পড়ুন: নদীর উপর দাউ দাউ করে জ্বলে উঠল পালতোলা নৌকা, দেখুন চাঞ্চল্যকর ছবি

মৃত গৃহবধূর নাম পিঙ্কি বিবি। বাড়ি, হরিহরপাড়া থানার ছাতিমতলা গ্রামে। স্বামী মিলন শেখ পেশায় কৃষক। ওই দম্পতির একমাত্র মেয়ে রানীর বয়স মোটে একবছর। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, কয়েক বছর আগে সামাজিকভাবে বিয়ে হয় পিঙ্কি ও মিলনের। স্বামীর সঙ্গে সুখেই সংসার করছিলেন পিঙ্কি।  কিন্তু মাস খানেক আগে পাশের গ্রামে মহিলার সঙ্গে মিলন পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন বলে অভিযোগ। এমনকী, প্রথম স্ত্রীকে ডিভোর্স না দিয়ে প্রেমিকাকেও বিয়ে করে ফেলে সে! যথারীতি পরিবারে শুরু হয় অশান্তি।

আরও পড়ুন: কর্মীদের 'গাফিলতি'তে শিকেয় উঠেছে কাজকর্ম, পঞ্চায়েত অফিসে তালা ঝোলালেন প্রধানই

প্রতিবেশীদের অভিযোগ, বাড়ি এসে মাঝেমধ্যে পিংকির উপর চড়াও হত মিলন। চলত অকথ্যা শারীরিক অত্যাচার। প্রতিবাদ করলে ওই গৃহবধূকে রেয়াত করত না শাশুড়ি ও ননদও। শেষপর্যন্ত বৃহস্পতিবার দুপুরে স্ত্রী ও শিশুসন্তানকে মিলনই পিটিয়ে খুন করে। শুধু তাই নয়, সন্দেহ দূর করার জন্য দু'জনের শরীরে জড়িয়ে দেওয়া হয় বিদ্যুতের তার। জামাই -সহ তিনজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতার বাপের বাড়ির লোকেরা। মূল অভিযুক্ত মিলন শেখ পলাতক। তার বাবাকে আটক করেছে পুলিশ।