লকডাউনের বাজারে কীভাবে সংসার চলছে, সেদিকে নজর নেই। বাড়ি ফেরার পর থেকে দিনরাত জুয়া খেলাতেই মেতে থাকেন স্বামী। প্রতিবাদ করায় বেধড়ক মার খেলেন এক মহিলা। ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ার ওন্দায়।

আরও পড়ুন: স্পেশাল ট্রেনে ফেরার পথে বিপত্তি, নিখোঁজ ৫৯ জন পরিযায়ী শ্রমিক

ওন্দার থানার পুনিশোল গ্রামে থাকেন আমিউদ্দিন রায়েন। পেশায় তিনি পরিযায়ী শ্রমিক। ওড়িশার রাউরকেল্লায় কাজ করতেন আমিউদ্দিন। স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে সংসার। পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভালো নয়। সামান্য রোজগারে কোনওমতে দিন চলত। লকডাউনের জেরে এখন কাজকর্ম লাঠে উঠেছে, রোজগারও বন্ধ। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, দিন কুড়ি আগে বাড়ি ফেরেন আমিউদ্দিন। কিন্তু স্বাস্থ্য বিধি মানা তো দূর, উল্টে রোজ সকালে আরও বেশ কয়েকজন সঙ্গে তাস ও জুয়া খেলে সময় কাটাতেন তিনি। স্বামীর জুয়া খেলা পছন্দ ছিল না আমিউদ্দিনের স্ত্রী পারিনার। বেশ কয়েকবার বাধা দিয়েছিলেন। কিন্তু তাতেও কোনও লাভ হয়নি। নিজের টাকা তো বটেই, জমানো টাকাতেও চলত জুয়া খেলা।

আরও পড়ুন: স্বামী ছেড়ে প্রেমিকের জন্য় ধরনায় প্রেমিকা , খবর পেয়েই বেপাত্তা প্রেমী

পরিস্থিতি চরমে পৌঁছায় শুক্রবার সকালে। বাধা পেয়ে আমিউদ্দিন স্ত্রীর উপর চড়াও হয়ে বেধড়ক মারধর করেন বলে অভিযোগ। মাথায় ফেটে যায় পারিনার, গুরুতর আঘাত লাগে হাতেও। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় ওন্দা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ওই মহিলাকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় বিষ্ণুপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন আমিউদ্দিনের স্ত্রী পারিনা। অভিযুক্তের কঠোর শাস্তির দাবি করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারাও।