দুটি মিনিবাসের রেষারেষিতে প্রাণ গেল এক যাত্রীর।  আহত দুটি বাসের আরও অনেক যাত্রী।  শনিবার ভরদুপুরে দুর্ঘটনা ঘটল হাওড়া ব্রিজে। আহতের ভর্তি হাওড়া হাসপাতাল ও কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে।  দুটি বাসকেই আটক করেছে নর্থ পোর্ট থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন: রাজ্যে ডেঙ্গুর বলি আরও ১, বাড়ছে মহামারীর আশঙ্কা

কে কত বেশি যাত্রী  তুলতে পারে, তারই প্রতিযোগিতা চলছিল।  হাওড়া ব্রিজে পাল্লা দিয়ে গতিও বাড়ছিল দুটি মিনিবাসের। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, শনিবার দুপুরে ৭৩ নম্বর রুটের ওই দুটি মিনিবাসই হাওড়া ব্রিজ পেরিয়ে ধর্মতলার দিকে যাচ্ছিল। যেকোনও সময়ে যে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে, তা আঁচ করতে পেরেছিলেন যাত্রীরা। বারবারই বাসের চালক ও কডাক্টরকে বারবার সতর্ক করছিলেন তাঁরা। কিন্তু যাত্রীদের কথা চালক ও কডাক্টর কানেই তোলেননি বলে অভিযোগ।  এদিকে হাওড়া ব্রিজে যখন দুটি মিনিবাসের রেষারেষি চলছে, তখন উল্টোদিক থেকে অর্থাৎ ধর্মতলা থেকে হাওড়ার দিকে আসছিল  ৪১ নম্বর রুটের আরও একটি মিনিবাস। শেষপর্যন্ত ৭৩ নম্বর রুটের একটি মিনিবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সোজা গিয়ে ধাক্কা মারে উল্টো দিক থেকে আসা মিনিবাসটিকে।  

আরও পড়ুুন: বারাণসীতে বাধা, বাংলার কলেজে সংস্কৃত ও বেদান্ত পড়াচ্ছেন দুই মুসলিম

দুর্ঘটনায় অল্প বিস্তর চোট পান দুটি বাসের যাত্রীরাই।  আহতদের উদ্ধার করে তড়িঘড়ি নিয়ে যাওয়া হয় হাওড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে।  হাসপাতালে মারা যান একজন। আহতদের বেশিরভাগেরই শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁদের স্থানান্তরিত করা হয়েছে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে।  দুটি বাস আটক করেছে নর্থ পোর্ট থানার পুলিশ।