ডাইনি বলাকে কেন্দ্র করে গুলিবর্ষণ পুরুলিয়ায়। ডাইনি বলাকে কেন্দ্র করে  গুলি চলল পুরুলিয়ার টামনা থানার কোটলই গ্রামে। এদিকে এই ঘটনায় গুলি বিদ্ধ হন এক ব্যাক্তি। সংঘর্ষে আহত হন এক মহিলা সমেত আরও দুজন। ইতিমধ্যেই গোটা ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

আরও পড়ুন, পামেলাকাণ্ডে নোটিশ এবার অনুপম হাজরা-শঙ্কুদেব পণ্ডাকে, তৃণমূলকে তীব্র আক্রমণ BJP নেতার  

 

গত কয়েকদিন ধরেই এই গ্রামে সুভাষ কুমারের পরিবারের সঙ্গে ঝামেলা বাধে গ্রামেরই চৈতু কুমারের। চৈতু, সুভাষ কুমারের পরিবারের এক মহিলাকে ডাইনি বলেছিল। এনিয়ে গতকাল অভিযোগ হয় টামনা থানায়। এরপর দুই পরিবারের মধ্যে উত্তেজনা অনেক বেড়ে যায়। শুক্রবার সকালে দুই পক্ষই জড়িয়ে যায় সংঘর্ষে। অভিযোগ এসময় অবৈধ বন্দুক থেকে গুলি চালিয়ে দেয় চৈতু। গুলি লাগে সুভাষ কুমারের। সংঘর্ষে আহত হন এক মহিলা সমেত আরও দুজন। সুভাষ কুমারকে আশঙ্কা জনক অবস্থায় পুরুলিয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন, আজই বাংলা সহ ৫ রাজ্যের ভোটের দিন ঘোষণা, কমিশনের বৈঠক ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে 


 ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।এদিকে সামান্য ডাইনিকে কেন্দ্র করে বচসা তার জেরে গুলি চলানোর ঘটনায় আতঙ্ক এলাকায়। প্রসঙ্গত ডাইনি বলা বা আখ্য়া দেওয়া মত কুখ্যাত প্রচলত এখনও রাজ করছে দেশ তথা রাজ্যে। একুশ সালে পা দিয়েও তা থেকে বিরত থাকা যায়নি। মূলত শিক্ষার হার বাড়লেই এই পৈশাচিক আখ্যা বা ঘটনা থেকে বিরত থাকা যাবে বলে দাবি সমাজ সচেতকদের।