ছ' বছর আগে এক যুবকের দেওয়া বিয়ের প্রস্তাব খারিজ করেছিলেন। সেই প্রত্যাখ্যানের প্রতিশোধ এতদিন নিল সেই প্রেমিক। বাড়িতে ঢুকে এক গৃহবধূকে ছুরি দিয়ে এলোপাথাড়ি আক্রমণের অভিযোগে দুর্গাপুরে গ্রেফতার করা হল এক জ্যোতিষীকে। 

পুলিশ সূত্রে খবর, দুর্গাপুরের বিধাননগর হাউসিং আবাসনের বাসিন্দা ওই গৃহবধূকে ৬ বছর আগে বিয়ের প্রস্তাব দেয় ওই পাড়ারই যুবক, পেশায় জ্যাতিষী রঞ্জিত পান্ডে। কিন্তু সেই প্রস্তাবব খারিজ করে দেন তিনি। চার বছর আগে ওই যুবতীর অন্যত্র বিয়ে হয়ে যায়। কয়েকদিন আগে তিনি বিধাননগরে তাঁর বাপের বাড়িতে অসুস্থ মা বাবাকে দেখতে আসেন। 

আরও পড়ুন- সংসারে অনটন নেই, স্বাবলম্বী হতেই ওলা বাইক চালাচ্ছেন দুর্গাপুরের গৃহবধূ

৬ বছর আগের বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় প্রতিহিংসা থেকেই শুক্রবার সকালে রঞ্জিত নামে ওই জ্যোতিষী গৃহবধূর উপরে হামলা চালায়। ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি আঘাত করে তাঁকে  খুন করার চেষ্টা হয় বলে অভিযোগ । মেয়েকে বাঁচাতে গিয়ে আহত হন অসুস্থ মা বাবাও।  গুরুতর আহত অবস্থায় ওই গৃহবধূকে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।  অভিযুক্ত রঞ্জিতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই গৃহবধূ জানান, 'বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় আমার জীবন দুর্বিষহ করে তোলার হুমকি দিয়েছিল রঞ্জিত।মঙ্গলবার একটি সমস্যা নিয়ে কাউন্সিলরের বাড়ি থেকে ফেরার সময়ও রঞ্জিত আমার পিছুন নেয়।'

গৃহবধূ জানান, এ দিন সকাল ৬.১০ মিনিটে দরজায় বেলের আওয়াজ পেয়ে কাজের লোক এসেছে ভেবে দরজা খোলেন তিনি। দরজা খুলতেই রঞ্জিত এলোপাথারি ছুরি চালাতে শুরু করে। অভিযোগ, ছুরি চালিয়ে আঘাত করে সেই রক্তমাখা ছুরি নিয়েই তিনতলা থেকে সিঁড়ি দিয়ে নেমে রাস্তা দিয়ে হেঁটে নিজের বাড়িতে চলে যায়। পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন।