কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন তোলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেশদ্রোহী বলে আক্রমণ করলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। শুক্রবার পুরুলিয়ায় একটি মামলায় হাজিরা দিতে এসে এই মন্তব্য করেন বিজেপি নেতা। 

মুকুলবাবু বলেন,‘পুলওয়ামার ঘটনার পর তিনি সরাসরি কেন্দ্রীয় বাহিনীর দিকেই আঙুল তুলেছিলেন। আর ৩৭০ ধারা বিলোপের পর তিনি যে ভূমিকায় নেমেছেন, তাতে তাঁকে রাষ্ট্রদোহী বলা উচিত। যা হয়েছে সংবিধান মেনে হয়েছে। ভারতবর্ষের সমস্ত রাজনৈতিক দল এটাকে সমর্থন করেছে। আর উনি বলছেন পদ্ধতিগত ভুল হয়েছে। ওনার এখন জলে নামবো কিন্তু বেনি ভেজাবো নার মতো অবস্থা।’ 

এর পাশাপাশি 'দিদিকে বলো' কর্মসূচি নিয়েও কটাক্ষ করেছেন মুকুল। তিনি বলেন, 'কটা লোক 'দিদিকে বলো'-য় ফোনে পেয়েছেন? দিদি এখন প্রাণান্তকর চেষ্টা করছেন পিসি থেকে দিদিতে নামার। উনি আর পিসি শুনতে চাইছেন না। বাংলায় গণতন্ত্র বলে কিছু নেই। বিজেপি কর্মীদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে। বিজেপির রাজ্য সভাপতিকে সার্কিট হাউসে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না l তিনি আগে যা ছিলেন তার থেকে আরও খারাপ হয়েছে l এর ফল তাঁকে ভোগ করতে হবে।'

এ দিন শোভন চট্টোপাধ্যায় প্রসঙ্গ তুলেও তৃণমূল সুপ্রিমোর সমালোচনা করেন মুকুল। তিনি বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হওয়ার পিছনে শোভনবাবুরও যথেষ্ট ভূমিকা রয়েছে।’