রবিবাসরীয় ভোটের প্রচারে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। শাসক-বিরোধী প্রচারে ঝড় তুলেছেন কেন্দ্র ও রাজ্যের নেতা-নেত্রী থেকে প্রার্থীরা। পুরো রাজ্যবাসীর নজর ভোট প্রচারের দিকে। এরই মধ্যে সকলের অগচরে ভোটের বাজারে এক মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী থাকল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা। একইসঙ্গে স্বামী-স্ত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বংশীহারী থানার পাঁচরাই এলাকায়। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকালে তারা মৃত হাফিজুর রহমানের বাড়ি থেকে শিশুদের কান্নার আওয়াজ শুনতে পান। দীর্ঘক্ষণ কান্নার আওয়াজ না থামায় দৌড়ে যান স্থানীয় বাসিন্দারা।বাড়িতে প্রবেশ করতেই দেখতে পান ঝুলন্ত অবস্থায় হাফিজুর রহমানকে। পাশাপাশি  ঘরের ভেতর ওই ব্যক্তির স্ত্রী মাহমুদা খাতুনের রক্তাক্ত দেহ নজরে আসে। মৃত ব্যক্তির নাম হাফিজুর রহমান। বয়স ৪৫, মৃত মহিলার নাম মাহমুদা খাতুন, বয়স ৩৫। 

তবে কি কারণে এই মৃত্যু, হত্যা না আত্মহত্যা তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। প্রতিবেশীদের অনুমান স্ত্রীকে মেরে ফেলার পর নিজে আত্মহত্যা করেছে হাফিজুর রহমান নামে ওই ব্যক্তি। খবর পেয়ে পুলিস গিয়ে দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠায়। কান্না ভেঙে পড়েছে দম্পতির সন্তানরা।  খুন নাকি আত্মহত্যা, তা নিয়ে ধন্দের মধ্যেই  ঘটনার প্রকৃত তদন্ত শুরু করেছে বংশীহারী থানার পুলিস।