ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে মানুষ কতটা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন দেখতে আজ নামখানা ও ফ্রেজারগঞ্জে আসছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। ইতিমধ্য়েই বিজেপি সাংসদের বুলবুল বিধ্বস্ত এলাকা  দেখতে যাওয়ার বিষয়ে জানানো হয়েছে রাজ্য় সরকারকে। মন্ত্রী নিজেই জানিয়েছেন, বাস্তবে বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষ কীভাবে আছেন তা দেখতেই তাঁকে পাঠিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে রাজ্য় সরকারের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। খোদ মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। তবু বাস্তবের মাটিতে কতটা ক্ষয়ক্ষতি দেখতে এবার বুলবুল বিধ্বস্ত এলাকায় বাবুল সুপ্রিয়কে  পাঠালেন মোদী। এদিন সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বাবুল জানিয়েছেন, বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ নিয়ে জবাবদিহি চাইতে সেখানে আসছেন না তিনি।  বাংলার একজন সাংসদ হিসাবে বাস্তবের চিত্র দেখতে প্রধানমন্ত্রী তাঁকে ক্ষতিগ্রস্থ জায়গায় যেতে  বলেছেন। এটা একটা সাধারণ সফর। 

রাজ্য় রাজনীতির  অতীত বলছে,আগে বিজেপি নেতারা রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে তৃণমূলের বিক্ষোভের মুখে পড়েছেন। অনেক জায়গায় এলাকায়  নামতেই দেওয়া হয়নি বিজেপি নেতা-মন্ত্রীদের। সেই আশঙ্কা যে অমূলক নয়, তা আগেভাগেই বুঝতে পেরেছে বিজেপি নেতৃত্ব। সেকারণে দক্ষিণ ২৪ পরগণার  বুলবুল বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনের আগে এই নিয়ে রাজনীতি না করার আহ্বান জানিয়েছেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ। 

অন্যদিকে, বাবুল সুপ্রিয়র এই সফর নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি তৃণমূল কংগ্রেস। পরিসংখ্য়ান বলছে, রাজ্য়ে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ১৪ জন। ইতিমধ্য়েই মৃতদের পরিবারের সাহায্য়ে ২ লক্ষ টাকা করে ক্ষতি পূরণ দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন মখ্য়মন্ত্রী। সোমবারই আকাশপথে বুলবুলের ক্ষতির  পরিমাণ বোঝার চেষ্টা করেছেন তিনি।