জাতীয় পতাকা তুলতে গিয়েই বিপত্তি। স্বাধীনতা দিবসে দিনভর তৃণমূল কংগ্রেসের পার্টি অফিসে উল্টো উড়ল জাতীয় পতাকা। স্থানীয় তৃণমূল নেতারা অবশ্য এতেও বিরোধীদের চক্রান্তের গন্ধ পাচ্ছেন!

বৃহস্পতিবার এমনই ঘটনা ঘটল পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনায়। চন্দ্রকোনা ২ নম্বর ব্লকের ভগবন্তপুর ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের চৈতন্যপুরে তৃণমুলের বুথ কার্য্যালয়ে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে জাতীয় পতাকা তোলা হয় বৃহস্পতিবার সকালে। কিন্তু কেউই খেয়াল করেননি যে উল্টোভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন হয়েছে। মাইক বাজিয়ে দিনভর বাজতে থাকে দেশাত্মবোধক গান। আর তার সঙ্গে উড়তে থাকে উল্টো জাতীয় পতাকা। 

আরও পড়ুন- জলের নিচেও উড়ল তেরঙ্গা! এভাবেই দেশকে সম্মান জানালেন পুদুচেরির এই ডাইভার, দেখুন ভিডিও

আরও পড়ুন- জাতীয় পতাকার নকশাকার, জেনে নিন এই মহান ব্যক্তিত্ব সম্বন্ধে কিছু কথা

শেষ পর্যন্ত বিকেলের দিকে স্থানীয় এক বাসিন্দাই বিষয়টি তৃণমূল নেতাদের গোচরে আনেন। এর পরেই তড়িঘড়ি তা ঠিক করে দেওয়া হয়। যদিও তৃণমূল নেতারা অবশ্য ভুল স্বীকার করতে নারাজ। উল্টে তাঁরা দায় চাপাচ্ছেন বিরোধীদের উপরেই। তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য  বদর আলি খান বলেন, 'আমরা ঠিকভাবেই জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেছিলাম। বিরোধীরাই চক্রান্ত করে তা উল্টে দিয়েছে।'

সুযোগ পেয়ে শাসক দলকে বিঁধতে ছাড়েনি বিজেপি-ও। দলের জেলা সভাপতি সমিত দাস বলেন, 'ওঁরা জাতীয়তাবাদের কিছুই বোঝে না। নিজেদের রাজনীতি ছাড়া কোনও কিছুকেই সম্মানও দেয় না। উল্টো জাতীয় পতাকা উত্তোলন করাই তাঁর প্রমাণ।' এ বিষয়ে তৃণমূল জেলা সভাপতি অজিত মাইতির প্রতিক্রিয়া জানার চেষ্টা করা হলেও তা পাওয়া যায়নি।