Asianet News Bangla

পিতৃত্ব নিয়ে সন্দেহ স্বামীর, সদ্যোজাতকে কুয়োয় ফেলে 'খুন' মা-এর

  • ভালোবেসে বিয়ে করেছেন দু'জনে
  • সন্তানের জন্মের পর পিতৃত্ব নিয়ে সন্দেহ স্বামীর
  • দাম্পত্য কলহের জেরে সদ্যোজাতকে 'খুন' মা-এর
  • মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ায়
Newborn thrown intl well due family dispute in Bankura BTG
Author
Kolkata, First Published Aug 21, 2020, 3:16 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

সদ্যোজাতের বাবা কে? এই নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর অশান্তির বলি হল ১৪ দিনের একরত্তি শিশু! বাড়ি লাগোয়া কুয়ো থেকে উদ্ধার হল দেহ। খুনের অভিযোগে মা-কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ার মানকানালি পঞ্চায়েতের করনজোড়া গ্রামে। বাকরুদ্ধ স্থানীয় বাসিন্দারা। দোষীদের কঠোর শাস্তির দাবি তুলেছেন তাঁরা। 

আরও পড়ুন: মালয়েশিয়ায় কাজ করতে গিয়ে বাংলার যুবকের রহস্যমৃত্যু

বাঁকুড়ার সদর থানার মানকানালি পঞ্চায়েতের করনজোড়া গ্রামের বাসিন্দা আশিস বাউড়ি। বছর কয়েক আগে ভালোবেসে বিয়ে করছিলেন তিনি। স্ত্রী অর্চনা বাঁকুড়ার গঙ্গাজলঘাটি এলাকার বাসিন্দা। বিয়ের পর যথারীতি অন্তঃস্বত্ত্বা হন তিনি। সপ্তাহ দুয়েক আগে বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে জন্ম দেন একটি ফুটফুটে পুত্রসন্তানের। আর তাই নিয়ে যত গণ্ডগোল।

আরও পড়ুন: 'ধর্ষণের পর বধূর নগ্ন ছবি পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায়, শিক্ষকের 'কীর্তি'তে শোরগোল বর্ধমানে

কেন? স্থানীয় সূত্রে খবর, সন্তান প্রসবের পর হাসপাতাল থেকে স্ত্রীকে হাসপাতাল যে নম্বরটি দেওয়া হয়েছিল, সেটি হারিয়ে ফেলেন আশিস। এমনকী, সন্তানের পিতৃত্ব নিয়েও সন্দেহ জাগে তাঁর মনে! এরপর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে অশান্তি শুরু হয়। এর মাঝেই ১৬ অগাস্ট সদ্যোজাতকে সঙ্গে নিয়ে হাসপাতালে থেকে বাড়ি ফেরেন অর্চনা। তারপরেও কিন্তু অশান্তি মেটেনি। বৃহস্পতিবার সকালে আচমকাই বাড়ি থেকে উধাও হয়ে যায় একরত্তি শিশুটিকে। কী ব্যাপার? জানা যায়, স্বামীর সঙ্গে অশান্তির কারণে অর্চনা নিজেই তাঁর সন্তানকে কুয়ো ফেলে দিয়েছে!  খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেলে থেকে কুয়ো উদ্ধার হয় সদ্যোজাতের নিথর দেহ। অভিযুক্তকে মা-কে গ্রেফতার করা হয়েছে। মা নিজের সদ্যোজাত সন্তানকে এভাবে খুন করতে পারে! নৃশংস এই ঘটনায় কার্যত ভাষা হারিয়েছেন পাড়া-প্রতিবেশীরা। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios