একদিকে করোনার বাড়বাড়ন্তে  রাজ্য জুড়ে আতঙ্ক। অপরদিকে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ক্রমশ চড়ছে রাজনীতির পারদ। এই পরিস্থিতিতে মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে গেল  পুরুলিয়া ১নম্বার ব্লকের ঘাঘরজুড়ি গ্রামে। এক ব্যক্তিকে প্রকাশ্য দিবালকে কুড়ুল দিয়ে এলোপাথারি কুপিয়ে খুন করল অপর ব্যক্তি। শুধু তাই নয় ধর থেকে মাথা আলাদা করে কুয়োতে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ। স্বাভাবিকভাবে এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে ঘাঘরজুড়ি গ্রামে।

"

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে,শুক্রবার ভবতারন মাহাতো গ্রামের রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় হঠাৎই তারউপর হামলা হামলা করে দুবরাজ মাহাত। কুড়ুল দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয় ভবতারনকে। প্রথমে বেশ কয়েক কোপ দিয়ে চলে যায় দুবরাজ। পরে ফিরে এসে দেহ থেকে মুন্ডু কেটে একটি পরিত্যক্ত কুয়োয় ফেলে দেয়। খুন করার পর নিজের বাড়িতেই আত্মগোপন করে অভিযুক্ত। ব্যক্তিগত কোনও শত্রুতা বা জমি নিয়ে বিবাদের জেরেই এই খুন বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে।

"

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুরুলিয়ার মফঃস্বল থানার পুলিস। ধৃতকে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়ার সময় গ্রামবাসীরা পুলিসের উপরও হামলা করে বলে অভিযোগ। অভিযুক্তকে জনতার হাতে ছেড়ে দেওয়ার দাবি জানায় গ্রামবাসীরা। কুয়ো থেকে মৃত ব্যক্তির মাথা দীর্ঘক্ষণ উদ্ধার করতে না পারাতেও, এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদের পাশাপাশি সঠিক কি কারণে এই খুন তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিস। তবে এমন নৃশংস ওমর্মান্তিক ঘটবায় আতঙ্ক গোটা গ্রাম জুড়ে।