পুলিশ লাইনের সামনে দাড়িয়ে পুলিশের পোশাক পরেই ছিনতাই। ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালদা শহরের অভিরামপুর এলাকায়। ইতিমধ্য়েই ঘটনার তদন্তে নেমেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। তবে এ ধরনের প্রতারণার ঘটনায় রীতিমত উদ্বিগ্ন অভিরামপুরের বাসিন্দারা।

আরও পড়ুন, পারিবারিক বিবাদের বলি, ঘুমন্ত অবস্থায় শিশুকে খুন কাকু ও জেঠিমার
             
সূত্রের খবর,  পুলিশের পোশাক পরে ছদ্মবেশ নিয়ে বছর পঞ্চাশের মহিলার কাছ থেকে ছিনতাই করে নিয়ে গেল এক দুষ্কৃতি। এদিকে সামনে তখন পুলিশ লাইন। তাদের নাকের ডগায় বুড়ো আঙুল দেখিয়ে  ছিনতাই করে একনিমেষে হাওয়া ছিনতাইবাজ। শহরের গৌড় রোডের বাসিন্দা শ্যামলী দাস জানান, মঙ্গলবার সকালে একটি টোটোতে চড়ে তিনি বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় পুলিশ লাইনের সামনে পুলিশের পোশাক পরা তিন ব্যক্তি তার পথ আটকায়। তারা তাকে বলে শহরে ছিনতাইয়ের ঘটনা বেড়ে গিয়েছে। তিনি যাতে তার গয়না গুলো খুলে একটি কাগজে ভরেন। এরই মধ্যে ওই পুলিশকর্মীরাই তার গয়নাগুলো খুলে নেয় ও একটি কাগজে মুড়ে তাকে দেয়। বাড়িতে ফিরে তিনি দেখেন কাগজের প্যাকেট খুলতে একটি রয়েছে প্লাস্টিকের চুড়ি নেই কোনও গয়না। 

আরও পড়ুন, কেজরিওয়ালদের জয়ের পর 'গা-ঝাড়া' মুখ্য়মন্ত্রীর, বাঁকুড়ার সভা থেকে তোপ বিজেপিকে

স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালদা শহরের অভিরামপুর এলাকায়।পুলিশের পোশাক পরে পুলিশ লাইনের সামনে এ ধরনের প্রতারণার ঘটনায় রীতিমত উদ্বিগ্ন শহরবাসী। ওই মহিলা ইংরেজবাজার থানায় অভিযোগ জানিয়েছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। তবে প্রশ্ন উঠেছে পুলিশের পোশাকে অপরাধী যদি এভাবে এসে প্রতারণা করে তাহলে বিশ্বাসযোগ্য়তা হারাতে বসবে।